নয়াদিল্লি: ধরা যাক যে কোনও মুহূর্তে যুদ্ধ শুরু৷ সেইমতোই পুরোদস্তুর মহড়ায় নামছে ভারতের সেনাবাহিনী।  জম্মু-কাশ্মীরের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর যেভাবে চোরাগোপ্তা হামলা চালাচ্ছে পাকিস্তান, তার পালটা জবাব দিতে রণসজ্জায় সদাপ্রস্তুত থাকতে বাধ্য হচ্ছে ভারতীয় সেনা। যার প্রথম দফার মহড়া দেখা যাবে পুজোর মাসেই। বাংলা সহ গোটা দেশ যখন মাতৃশক্তির বন্দনায় মেতে উঠবে, তখন দেশের পশ্চিম প্রান্তে রাজস্থানের মরুভূমিতে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করবে ভারতীয় সেনা।

জবাবি হামলায় শত্রুঘাঁটিতে কী করে আক্রমণ করবে ভারত, তা ওই মহড়াতেই প্রদর্শিত হবে। আপাদমস্তক যুদ্ধের সাজে ভারী অস্ত্রশস্ত্র-সমেত শত্রুর সীমান্তে ঢুকে হামলা চালানোর কৌশল দেখা যাবে পাক ফ্রন্টের ওই সামরিক মহড়ায়।

ভারতরক্ষায় প্রস্তুত সেনার নয়টি বাহিনী প্রতিবেশীর ঈর্ষার কারণ

টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত এক রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ৩০ হাজারেরও বেশি সেনা অর্থাৎ সেনাবাহিনীর তিনটি ডিভিশন, শ’খানেক টি-৯০ ও টি-৭২ ট্যাঙ্ক, সাঁজোয়া যান, দূর ও মাঝারি পাল্লার কামান, ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোন ও অত্যাধুনিক রেডারের ব্যবহার ওই মহড়ায় প্রদর্শিত হবে। প্রাক-প্রস্তুতিও পাকাপাকি সারা। পাকিস্তানকে এই মহড়ার কথা জানিয়েও দেওয়া হয়েছে।