ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

কাঠমান্ডু: জঞ্জালমুক্ত নয় বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ৷ সেখানেও জমে রাশি রাশি জঞ্জাল৷ হবে নাই বা কেন প্রতি বছর পর্বতারোহীর সংখ্যা হু হু বাড়ছে৷ আর যত বেশি মানুষ আসবে তত বেশি জঞ্জাল বাড়বে৷ সেটাই হচ্ছে মাউন্ট এভারেস্টে৷

আরও পড়ুন: দুমাস আগেই অমরনাথ যাত্রা, শিবলিঙ্গের প্রথম ছবি প্রকাশ্যে

বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গকে জঞ্জালের হাত থেকে বাঁচাতে নেপাল সরকার ‘স্বচ্ছ মাউন্ট এভারেস্ট অভিযান’ শুরু করে৷ তাতেই চোখ কপালে ওঠার মতো জঞ্জাল সংগৃহীত হয়েছে৷ সোমবার নেপাল সরকার জানিয়েছে, মাউন্ট এভারেস্ট থেকে তিন হাজার কেজি জঞ্জাল সংগৃহীত হয়েছে৷ এত জঞ্জাল কোথায় পাঠানো হবে সেই নিয়ে প্রথমে সমস্যায় পড়ে নেপাল সরকার৷ পরে আকাশপথে সেনা চপারে দুই হাজার কেজি পাঠানো হয় ওকালডুংগা ও বাকি হাজার কেজি পাঠানো হয় রাজধানী কাঠমান্ডুতে৷

 

নেপাল সরকারের পর্যটন বিভাগের ডিরেক্টর জেনারেল ডান্দু রাজ ঘিমিরে জানান, বেস ক্যাম্প থেকে শুরু হয় স্বচ্ছতা অভিযান৷ বেস ক্যাম্প থেকে পাঁচ হাজার কেজি জঞ্জাল পাওয়া যাবে বলে ধরা হয়েছিল৷ যার মধ্যে সাউথ কোল এলাকা থেকে দুই হাজার ও ক্যাম্প টু এবং ক্যাম্প থ্রি থেকে তিন হাজার জঞ্জাল রয়েছে৷ জঞ্জাল কুড়ানোর সময় সাফাই কর্মীরা চারটি মৃতদেহ খুঁজে পায়৷

আরও পড়ুন: শ্রীলঙ্কা বিস্ফোরণের জের, মুখ ঢাকতে পারবেন না মুসলিম মহিলারা

এই সাফাই অভিযানের জন্য ২৩ মিলিয়ন নেপালি টাকা খরচ হয়েছে৷ নতুন নেপাল সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রথম এমন উদ্যোগ নেয়৷ এভারেস্ট স্বচ্ছ অভিযানে এগিয়ে আসে পর্যটন, অসামরিক বাহিনী, পরিবেশ ও সংস্কৃতি মন্ত্রক এবং নেপালি সেনা ও সাগরমঠ দূষণ নিয়ন্ত্রণ কমিটি৷