স্টাফ রিপোর্টার, সম্বলপুর: রক্ষকই ভক্ষক৷

ফের যৌন লালসার শিকার হল এক শিশু৷এবার ঘটনাস্থল ওডিশার সম্বলপুর সদর হাসপাতাল৷ অভিযোগ, হাসপাতাল করিডরের ভেতরেই তিন বছরের এক শিশুকে যৌন নির্যাতন করে হাসপাতালের এক নিরাপত্তারক্ষী সহ দু’জন৷ শিশুর পরিবারের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পৃথক পৃথকভাবে তদন্ত শুরু করেছে৷ ঘটনায় হাসপাতালের ওই নিরাপত্তারক্ষীকে আটক করেছে পুলিশ৷

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্বলপুরের এক মহিলা সম্প্রতি প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন৷মঙ্গলবার রাতে তাঁর সঙ্গে ছিল তাঁর বছর তিনেকের শিশু৷ সে হাসপাতালের করিডরে খেলছিল। অভিযোগ, সেই সময় হাসপাতালের এক নিরাপত্তারক্ষী সুজিত রোনা সহ দু’জন তাঁকে চকলেট দেওয়ার লোভ দেখিয়ে আড়ালে নিয়ে গিয়ে যৌন নির্যাতন করেন৷

রাতে নির্যাতিতা শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে৷ কাঁদতে কাঁদতে পুরো ঘটনা তাঁর মাকে জানায়৷ লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পৃথক পৃথকভাবে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷ হাসপাতালে শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষা করানো হয়েছে৷ সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর৷ অভিযুক্ত রক্ষীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.