কলকাতা: রাজ্যে নতুন করে আরও তিনজনের শরীরে ধরা পড়ল করোনা সংক্রমণ। পশ্চিমবঙ্গে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ২৫।

এর মধ্যে কলকাতায় দু’জন আক্রান্ত হয়েছেন ও মেদিনীপুরে একজন। মঙ্গলবার সকালে পাওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩২ বছরের এক যুবক।

এছাড়া কলকাতায় আক্রান্ত আরও ২ জন। একজন ঢাকুরিয়ার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। অন্যজনের চিকিৎসা চলছে সল্টলেক আমরিতে। অন্যদিকে, রাজ্যে আরও এক জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। হাওড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। রাজ্যের মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল তিন।

এর আগে সোমবার শোভাবাজারের এক ব্যবসায়ীর শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে। আক্রান্ত বরানগরের এক প্রৌড়। তাঁর সংস্পর্শে আসা ২১ জনকে ইতিমধ্যেই কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তেহট্টে করোনা আক্রান্তদের নিয়ে আশঙ্কা ক্রমেই বাড়ছে। সংস্পর্শে থাকার জন্য আরও অনেককে আশায় কোয়ারেনটাইনে পাঠানো ব্যক্তিদের সংখ্যা বেড়ে হল ৬৭। এর আগে স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছিল, মোট ৪৯ জনকে ওই পরিবারটির কাছাকাছি এসেছেন বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। সোমবার সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসাবে আরও ১৮ জনকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়।

করোনায় আক্রান্ত নদিয়ার তেহট্টের পাঁচ বাসিন্দা। শনিবার তাঁদের বেলেঘাটা আইডিতে ভর্তি করা হয়। জানা যাচ্ছে, তেহট্টের করোনা আক্রান্তের পাঁচজনের আজ রবিবার দ্বিতীয়বার নমুনা পরীক্ষা হয়। একই সঙ্গে আগে থেকে ভর্তি আট আক্রান্তেরও রবিবার আরেক দফা পরীক্ষা করা হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা যাচ্ছে। আইসিএমআরের গাইডলাইন অনুযায়ী, পজিটিভ রোগীদের পরীক্ষা করতে হয় ৪৮ ঘন্টা অন্তর অন্তর। তাতে সংক্রমণের মাত্রা ধরা পড়ে। আর সেই গাইড লাইন মেনেই দফায় দফায় আক্রান্তদের করা হচ্ছে পরীক্ষা।