আগ্রা: ঘন্টার পর ঘন্টা তাজমহলে বসে হাওয়া খাওয়া কিংবা সেলফি তোলার দিন শেষ হচ্ছে ৷ কারণ পর্যটকদের সেখানে থাকার ক্ষেত্রে সময়সীমা বেধে দেওয়া হচ্ছে তিন ঘন্টা৷ যদি তিনঘন্টার বেশি সময় সেখানে থাকা হয় তাহলে অতিরিক্ত টাকা জমা দিতে হবে৷ তাছাড়া অননুমোদিত প্রবেশ রুখতে টার্নস্টাইল গেট বসানো হচ্ছে এই স্মৃতি সৌধে৷

আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার সুপারেন্টেন্ডেড বসন্ত কুমার জানিয়েছেন, সাতটি টার্নস্টাইল গেট বসান হয়েছে পূর্ব এবং পশ্চিম পয়েন্টে ৷ তাছাড়া বিদেশি পর্যটকদের জন্য আলাদা গেচের ব্যবস্থা করা হচ্ছে৷ প্রবেশ করা যাবে টোকেন-এ মাধ্যমে এবং তার বৈধতা থাকবে তিনঘন্টার জন্য৷

আগে যেখানে দর্শকরা সকালে ঢুকে সন্ধে পর্যন্ত থাকতে পারত কারণ এই শৌধ খোলা থাকে সূর্যোদয়ের ৩০ মিনিট আগে থেকে সূর্যাস্তের ৩০ মিনিট পরে৷ নতুন নিয়মে পর্যটকরা হতাশ , মনে করা হচ্ছে পর্যটন শিল্প এর ফলে মার খেতে পারে৷

প্রসঙ্গত, সুপ্রিম কোর্ট ফেব্রুয়ারি মাসে উত্তর প্রদেশ সরকারকে ভৎসনা করেছিল তাজমহলের খারাপ রক্ষণাবেক্ষণের ব্যবস্থার জন্য এবং বলা হয়েছিল এই বিষয়ে কতটা সিরিয়াস তা জানাতে ৷ গত বছরের জুলাই মাসে উত্তর প্রদেশ সরকার আদালতের কাছে খসড়া নথি জমা করেছিল যাতে আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল তাজমহলকে আগের অবস্থা রেখে দেওয়া জন্য বেশ কিছু পদক্ষেপ করা হয়েছিল৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।