প্রতীকি ছবি

নয়াদিল্লি: করোনা মোকাবিলায় দিশাহারা বিশ্বের তাবড় তাবড় দেশ। বিশ্বের অআনেক দেশ ইতিমধ্যেই যুদ্ধবিরতির পথে হাঁটছে। কিন্তু এর মধ্যেও পাকিস্তান গুলি থামাচ্ছে না। পাক সেনার গুলিতে মৃত্যু হল তিন ভারতীয়ের। এর মধ্যে এক আট বছরের নাবালকও রয়েছে।

কাশ্মীরের সীমান্তে গুলি চালায় পাক সেনা। রবিবার সেই গোলাগুলিতে মৃত্যু হয়েছে তিন কাশ্মীরির, শামিনা বেগম, জাভেদ খান ও তুমনা গ্রামের বাসিন্দা এক পাঁচ বছরের নাবালক। কুপওয়াড়া জেলার তাংধার ও কারনাথ সেক্টরে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালায় পাক সেনা।

পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, হেভি শেলিং চলছিল সীমান্তে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ বাহিনী। তৎক্ষণাত স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্ধার করা হয়।

সূত্রের খবর, পাকিস্তানের টার্গেটে ছিল শারারাত পোস্ট, জাল, ব্ল্যাক রক ও আনিল পোস্ট। ওই এলাকায় বহু পাকিস্তানি শেল এসে পড়েছে বলে জানা গিয়েছে।

কয়েকদিন আগেই পাকিস্তানের মাটিতে জঙ্গিঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছিল ভারতীয় সেনা। সেই ভিডিও প্রকাশও করা হয়।

কুপওয়ারার কেরান সেক্টরে নিয়ন্ত্রণরেখার ওপারে জঙ্গি ঘাঁটি লক্ষ্য করে বড়সড় অভিযান চালায় ভারতীয় সেনা৷ ভারতীয় সেনার হামলায় বেশ জঙ্গিদের বেশ কয়েকটি লঞ্চ প্যাড গুঁড়িয়ে গিয়েছে বলেই দাবি করেছে ভারতীয় সেনা৷

গত রবিবার এই কেরান সেক্টরেই এই এলাকা দিয়েই নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে বেশ কিছু জঙ্গি৷ তাঁদের বাধা দেয় ভারতীয় সেনা৷ দু’ পক্ষের মধ্যে দীর্ঘক্ষণ গুলির লড়াই চলে৷

ভারতীয় সেনার দাবি, শুক্রবার সকাল থেকেই বিনা প্ররোচনায় ওই এলাকাতেই ফের ভারতীয় সেনা ঘাঁটি লক্ষ্য করে ভারী গোলাগুলি বর্ষণ শুরু করে পাকিস্তানি সেনা৷ কিছুক্ষণের মধ্যেই তার জবাব দিতে শুরু করে ভারতীয় সেনা৷ পাল্টা সীমান্তের ওপারে জঙ্গি ঘাঁটি লক্ষ্য করে ভারতের তরফেও গোলা বর্ষণ শুরু হয়৷

ভারতের পাল্টা হামলা জঙ্গিদের একটি লঞ্চ প্যাড সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় সেনা৷ এছাড়াও শত্রু শিবিরের প্রচুর অস্ত্রশস্ত্রেরও ক্ষতি হয়েছে৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV