নয়াদিল্লিঃ  আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। তার মধ্যেই মোটামুটি পরিষ্কার হয়ে যাবে যে, দিল্লির ক্ষমতায় কে আসছে। যদিও এক্সিট পোল বলছে যে, বিপুল আসন নিয়ে ফের ক্ষমতায় আসছেন মোদীই। সংখ্যাগরিষ্ঠের থেকেও বেশি আসন পেয়ে ক্ষমতার মসনদে বসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীই। তবু ও আসল ফলাফল প্রকাশ্যে না আসা পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছে না। তবে সপ্তম এবং শেষ দফা ভোটের পরেই এক্সিট পোলের যে পূর্বাভাস পাওয়া গিয়েছে তাতে উচ্ছ্বসিত বিজেপি নেতা কর্মীরা।

যদিও এখনও সেই অর্থে মোদী-অমিত শাহ শিবিরে সেই অর্থে কোনও উচ্ছ্বাস ধরা পড়েনি। যদিও এক্সিট পোলের পূর্বাভাস দেখে রীতিমত ঘর গুছাতে শুরু করেছেন মোদী-অমিত শাহরা।

গতকাল মঙ্গলবার এনডিএ’র সমস্ত শরিককে নিয়ে বৈঠকে বসেন মোদী-অমিত শাহরা। যদিও সেই বৈঠকের আগে কার্যত খুবই ‘গোপনে’ নিজেদের মধ্যে বৈঠকে বসেন মোদী-অমিত শাহরা। যেখানে মোদীর সমস্ত মন্ত্রিসভার সদস্যরা উপস্থিত ছিল। জানা যাচ্ছে, দ্বিতীয় বারের জন্যে ক্ষমতার শীর্ষে মোদী ফিরলে নতুন করে তাঁর মন্ত্রিসভা সাজাবেন তিনি। বিশেষ করে দুই সিনিয়র ও অসুস্থ নেতা অরুণ জেটলি ও সুষমা স্বরাজ এবার মোদী সরকারের মন্ত্রিসভায় স্থান পাবেন কিনা সেটাও যথেষ্ট বড় সংশয়। কারণ এই দুজনেই কিডনিঘটিত রোগে আক্রান্ত।

শুধু তাই নয়, এবারের লোকসভা ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বীতাও করেননি। ফলে আগামী পাঁচ বছর অর্থমন্ত্রক ও বিদেশমন্ত্রকের পদ সামলানোর মতো গুরুদায়িত্বে তাঁরা আবার গ্রহণ করবেন কিনা সেটা নিয়ে জোর চর্চা চলছে রাজনৈতিকমহলে।

শরিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসার আগে সরকার গড়ার প্রক্রিয়া নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে বিজেপি শিবিরে। মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে অমিত শাহ ও নরেন্দ্র মোদী বৈঠক করেন। সেখানে মন্ত্রীদের বার্তা দেওয়া হয় আগামী দিনে ফের মন্ত্রিসভায় স্থান না হলেও প্রত্যেকে এনডিএ জোটের হয়ে কাজ করবেন নিষ্ঠার সঙ্গে এটাই কাম্য। প্রসঙ্গত, মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে হওয়া মোদীর বৈঠকে হাজির হওয়া অনেক মন্ত্রীই হয়তো আগামীদিনে আর মন্ত্রী থাকবেন না। তাঁদের মধ্যে অনেকেই জয়ী হয়ে আর নাও ফিরতে পারেন।

বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক সেই কারণেই তাঁদের আজ মোদী ও অমিত শাহ বলেছেন, মন্ত্রক ছাড়াও সরকারের হয়ে কাজ করার অনেক পন্থা আছে। পাঁচ বছরে তাঁদের কাজের জন্য ধন্যবাদ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর রাতে অশোক হোটেলে আসেন এনডিএ জোটের শরিক নেতারা। সেখানে নৈশভোজ. ও বৈঠকের মধ্যেই অমিত শাহ প্রত্যেক নেতাকে আশ্বাস দেন আগামী সরকার শুধুই বিজেপির সরকার হবে এমন নয়, হবে এনডিএ জোটের সরকার।