স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা : সপ্তাহের শেষের দিকে যে শীত ফের তার খেল দেখাবে তা আগেই পূর্বাভাসে জানিয়ে দিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। আর আবহাওয়া দফতরের সেই পূর্বাভাস অনুযায়ী শনিবারই কলকাতার তাপমাত্রা নেমেছিল ৩.১ ডিগ্রি। আজ রবিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২.৪ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা তাপমাত্রা ২৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। আর্দ্রতা সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ সর্বনিম্ন ৩৪ শতাংশ।

গত শুক্রবার যেখানে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫.১ ডিগ্রি। সেখানে শনিবার তা নেমে দাঁড়ায় ১২ ডিগ্রিতে। পারদ পতন এদিন রবিবারও স্পষ্ট। রবিবার চুটিয়ে ছুটি উপভোগের দিন। রবিবার উপরি পাওনা প্রজাতন্ত্র দিবস। প্রায় শীতের শেষে পৌঁছে এখন এই সময়টায় সকলেই বনভোজন থেকে এদিক ওদিক ঘোরাটা সেরে ফেলেন। আর তা যদি এমন উপভোগ্য ঠান্ডায় হয় তাহলে তো কথাই নেই। কাশ্মীর থেকে হিমাচল প্রদেশে কনকনে ঠান্ডা হাওয়া বইছে। বরফ পড়ছে।

সেই বরফের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঠান্ডা হাওয়া বয়ে আনছে উত্তুরে কনকনে বাতাস। যা এ রাজ্যেও ঠান্ডার অনুভূতি এনে দিয়েছে। সামনের সপ্তাহে সরস্বতী পুজো। আর সরস্বতী পুজো কাটা মানেই কলকাতা থেকে শীতের বিদায় ঘণ্টা বেজে যাওয়া। তার উপর আগামী সপ্তাহে অর্থাৎ ২৮ থেকে ৩০ জানুয়ারি জম্মু-কাশ্মীরে একটি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আবার ওই সময় বঙ্গোপসাগরে ও একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্তও তৈরি হতে চলেছে। এর ফলে দক্ষিণবঙ্গে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। ঠান্ডা হাওয়া এবং সমুদ্রের জলীয় বাষ্পের সংস্পর্শে তৈরি হবে মেঘ। ফলে ওই সময় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।