নয়াদিল্লি: বিশ্ব জুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখনও বাড়ছে। গ্রাফ এখনও উর্দ্ধমুখী। পরিসংখ্যান বলছে, প্রত্যেক ২৫০ জনে একজন করোনা আক্রান্ত।

বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁয়েছে ৩৩ মিলিয়ন। আর সেই ডেটা থেকেই এই পরিসংখ্যান উঠে এসেছে। সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত রাষ্ট্রসংঘের হিসেব অনুযায়ী বিশ্বের মোট জনসংখ্যা ৭.৮ বিলিয়ন।

তাস নিউজ এজেন্সির রিপোর্ট অনুযায়ী, গত সপ্তাহে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩৭০০০। করোনায় এই পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ৯,৮৩,০০০।

.জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির রিপোর্ট বলছে, আমেরিকাতেই করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা সর্বোচ্চ।

এদিকে, গত ১১ দিনে সুস্থ হয়েছেন ১০ লক্ষেরও বেশি মানুষ। সুখবর শোলান কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। সোমবার ভারতের মোট সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা ছাড়াল ৫০ লক্ষের ঘর, যা রীতিমত সাফল্য বলেই মনে করছে কেন্দ্র।

এদিন একাধিক ট্যুইট করে বেশ কিছু তথ্য তুলে দেয় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। মন্ত্রক জানায়, সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা, দেশের মোট অ্যাক্টিভ কেসের তুলনায় পাঁচ গুণেরও বেশি। জুন মাসের ২০ তারিখে যে খানে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছিল মাত্র ১ লক্ষ, সেখানে সেপ্টেম্বরের শেষে ৫০ লক্ষের বেশি আরোগ্যের সংখ্যা। মন্ত্রক সূত্র খবর, প্রতিদিন এখন ৯০ হাজারেরও বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে উঠছেন।

এদিকে, দেশে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। শেষ ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হলেন ৮২ হাজার ১৭০ জন। এই সময়ের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১০৩৯ জনের। নতুন করে সংক্রমণ ও মৃত্যুর জেরে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬০ লক্ষ ৭৪ হাজার ৭০৩ জন।

এরমধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৯ লক্ষ ৬২ হাজার ৬৪০। সুস্থ হয়ে উঠেছে ৫০ লক্ষেরও বেশি মানুষ। দেশজুড়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৯৫ হাজার ৫৪২ জনের।

অন্যদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর, দেশের মাত্র ১০টি রাজ্যে ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে ছড়িয়ে রয়েছে মোটা করোনা আক্রান্তের ৭৫ শতাংশ রোগী। বাকি ২৫ শতাংশ ছড়িয়ে দেশের বাকি রাজ্যে। জানা গিয়েছে যে বা যাঁরা করোনার ভ্যাকসিন কেনার ক্ষমতা রাখেন না, তাঁদের কেন্দ্র বিনামূল্যে এই ভ্যাকসিন দেবে। এক উচ্চপদস্থ সরকারি আধিকারিককে উদ্ধৃত করে এই তথ্য দিয়েছে দ্য হিন্দু।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।