স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: আজ ২৪তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের শুভ উদ্বোধন৷ বিকেল চারটে নেতাজি ইন্ডোরে উৎসবের সূচনা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ইতিমধ্যেই চলচ্চিত্র উৎসবে সামিল হতে শহরে এসে উপস্থিত হয়েছেন বিগবি অমিতাভ বচ্চন৷ সঙ্গে এসেছেন অমিতাভ পত্নী মিসেস বচ্চনও৷ এসেছেন বলিউডের বিখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক মহেশ ভাট৷

২৪তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের জন্য সেজে উঠেছে নন্দন থেকে শুরু করে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম। শনিবার বিকেল চারটে উৎসবের সূচনা হবে অমিতাভ বচ্চনের হাতে।

সঙ্গে থাকছেন জয়া বচ্চন, শাহরুখ খান, ওয়াহিদা রহমান, সঞ্জয় দত্ত, মাজিদ মাজিদি। নন্দন চত্বরে এবং নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

আরও পড়ুন: জয়ের সরণীতে ফিরে সিরিজে সমতা আনল অস্টেলিয়া

নন্দনে ঢোকার মুখে প্রমাণ সাইজ পোস্টার নজর কাড়তে বাধ্য। সেখানে লেখা ‘আনন্দের শহরে বিশ্ব সিনেমার উৎসব’। বাংলা ছবির ১০০ বছর পূর্তির অংশ হিসেবে একটি রেস্টোরড ক্ল্যাসিক-এর ওয়ার্কশপ হচ্ছে। একটি নতুন বিভাগ করা হয়েছে ‘মায়েস্ত্রো’ যেখানে ২০১৮র সমস্ত নতুন ছবি থাকছে।

কান বা ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের সেরা পরিচালক, সেরা ছবির পুরষ্কার প্রাপ্ত ছবিগুলি রাখা হয়েছে এই তালিকায়। নানা রংয়ের হলিউড এবং বাংলা ক্লাসিক ছবির পোস্টার দিয়ে সাজানো হয়েছে উদ্বোধনের দুই কেন্দ্র। যথারীতি হাজির দুটি বিরাট সেলফি কর্নার।

আরও পড়ুন: আগুনের গ্রাসে তিলোত্তমা, ঘুম ভাঙছে না কারও

প্রথমটি হলিউড খ্যাতনামাদের ছবি দেওয়া। অপরটি বাংলা ছবির ১০০ বছর পূর্তি উপলক্ষে। সেই কর্নারে উত্তম কুমার থেকে জিৎ, ঋত্বিক ঘটক থেকে আশা ভোঁসলের ছবি রাখা হয়েছে। ‘সেলফি উইথ স্টারস’ এমন একটা ফিল দিতে পারে বিশ ফুট উঁচু দেওয়াল।

মূল মঞ্চের দু’ধারে দুটি মঞ্চ রয়েছে। নীচে দু’দিকেই রিভলভিং স্ক্রিন রয়েছে। বাংলা ছবির ১০০ বছর কথা মাথায় রেখে এবারে একটি আনুষ্ঠানিক থিম মিউজিক করা হয়েছে। সেখানে বিক্রম ঘোষের সঙ্গে থাকছেন পন্ডিত তেজেন্দ্র নারায়ণ। গাইবেন ঊষা উত্থুপ উস্তাদ রশিদ খানও।

আরও পড়ুন: রাতের ভস্মীভূত কারখানা আদতে ‘ঘুঘুর’ বাসা

খান সাহেবের খেয়ালি গলায় শোনা যাবে গাইবেন ‘মেঘে ঢাকা তারা’য় এটি কাননের গাওয়া বিখ্যাত ‘লাগি লগন’ গানটি। ঊষা উত্থুপ গাইবেন একটি ফিউশন। সেখানে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের লিপে বিখ্যাত ‘জীবনে কী পাব না’ থেকে অপর্ণা সেনের লিপে ‘আমি মিস ক্যালকাটা’ থাকছে।

এবারে ছবি দেখানোর স্থান ১৪ থেকে বাড়িয়ে ১৬টি করা হয়েছে। দমদম এবং হাওড়াতে ছড়িয়ে যাচ্ছে উৎসব। গত বছর ২৮৪টা ফিল্ম আনা হয়েছিল। এ বছর সেই সংখ্যা ৩৮টি বেড়ে ৩২২টি হয়েছে। বিশেষ আকর্ষণ বার্গম্যানের রেট্রোস্পেকটিভ। আবারও হাজির ক্লাসিক ছবি ‘বাইসাইকেল থিভস’।

আরও পড়ুন: গরু খুঁটায় মেতে উঠে বাঁধনা পরব পালন বাঁকুড়ায়