লন্ডন: চলতি উইম্বলডনের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেলও শাস্তির মুখে পড়তে হল ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী সেরেনা উইলিয়ামসকে৷ নিজের ব়্যাকেট দিয়ে ঘাসের কোর্ট ক্ষতিগ্রস্থ করায় আয়োজক অল ইংল্যান্ড লন টেনিল ক্লাবের তরফে জরিমানা করা হল সেরেনাকে৷

ইতিমধ্যেই লেডিস সিঙ্গলসের শেষ আটে জায়গা করে নেওয়ায় টুর্নামেন্ট থেকে বড় অঙ্কের পুরস্কার মূল্য অবধারিতভাবে পকেটে পুরবেন সেরেনা৷ তবে তাঁকে ১০ হাজার মার্কিন ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রাস ৭ লক্ষ টাকা জরিমানা দিতে হবে৷

প্রি-কোয়ার্টারে স্পেনের কার্লা সুয়ারেজ নাভারোকে ৬-২, ৬-২ স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে দিয়ে শেষ আটের জায়গা করে নিয়েছেন সেরেনা৷ কোয়ার্টার ফাইনালে তাঁর প্রতিপক্ষ আমেরিকারই অ্যালিসন রিস্ক, যিনি প্রি-কোয়ার্টারে শীর্ষ বাছাই তথা বিশ্বের এক নম্বর তারকা অ্যাশলে বার্টিকে ছিটকে দিয়েছেন টুর্নামেন্ট থেকে৷ ব্রিটেনের অ্যান্ডি মারেকে নিয়ে মিক্সড ডাবলসের দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছেন সেরেনা৷ যদিও জরিমানা প্রসঙ্গে তাঁর প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷

একা উইলিয়ামসেরই নয়, জরিমানা হয়েছে আরও দুই তারকারও৷ তৃতীয় রাউন্ডে হারের পর অখেলোয়াড়োচিত আচরণের জন্য ৩ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা হয়েছে ইতালির ফ্যাবিও ফগনিনির৷ প্রতিক্রিয়ায় ফগনিনি জানিয়েছেন, যেন অল ইংল্যান্ড ক্লাবে বড়বড় একটা বম্ব পড়ে৷

নিক কির্গিয়সকে দু’টি পৃথক ঘটনার জন্য ৮ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা করা হয়েছে৷ তাঁর বিরুদ্ধেও অখেলোয়াড়োচিত আচরণের অভিযোগ আনা হয়েছে৷ কির্গিয়স ইতিমধ্যেই নাদালের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছেন টুর্নামেন্ট থেকে৷ তবে নাদালকে আন্ডার-আর্ম সার্ভিস করার জন্য উইম্বলডনে বিস্তর সমালোচনা হয় অস্ট্রেলিয়ান টেনিস তারকাকে নিয়ে৷