ক্রমশ বাড়ছে সংক্রমণ! করোনাতে আক্রান্ত হওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যেকদিন প্রত্যেকদিনের রেকর্ড ভাঙছে। প্রায় লক্ষের কাছে সংক্রমণ ঘটেছে। দেশের সব রাজ্যেই করোনাতে সংক্রমণের হার বাড়ছে।

এই পরিস্থিতিতে গত কয়েকদিন আগে স্কুল খোলার কথা বলে কেন্দ্র। বলা হয় ২১ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল খোলা যাবে। যদিও ছোটদের নয়, বড়দের স্কুল খোলার কথা বলা হয়। যেখানে ক্রমশ সংক্রমণ বাড়ছে সেখানে স্কুল খোলা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে থাকে। বিতর্ক বাড়তে থাকে।

এই পরিস্থিতিতে কিছুটা হলেও পিছু হটল কেন্দ্র। নতুন করে স্কুল খোলা বিজ্ঞপ্তি দিল কেন্দ্র। কেন্দ্রের নির্দেশিকা, ২১ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুলগুলি পুনরায় চালু করা বাধ্যতামূলক নয়। এই বিষয়ে রাজ্যগুলি সিদ্ধান্ত নিতে পারবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দেশজুড়ে চতুর্থ পর্যায়ের আনলক চলছে। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে পরিস্থিতি। ভয়, আতঙ্ক ভুলেই পেটের টানে রাস্তায় বের হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। কিন্তু সাম্প্রতিক সমীক্ষা বলছে, রাস্তায় যে সমস্ত মানুষজন বের হচ্ছেন তাঁদেরই আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানায়, ২১ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। পুরোপুরি না হলেও আংশিকভাবে স্কুল খোলা যাবে বলে নির্দেশ জানায়। নির্দেশে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদেরই স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

গাইডলাইনে আরও বলা হয় যে, অনলাইন ক্লাসে অনুমতি দিচ্ছে কেন্দ্র। তবে, নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীরা চাইলে স্কুলে যেতে পারবে। অভিভাবকদের থেকে লিখিত অনুমতি এনে তবেই ক্লাসে যোগ দেওয়া যাবে।

ক্লাস, স্টাফ রুম, অফিস, ক্যাফেটেরিয়ায় সোশ্যাল ডিসট্যান্স মেনে চলার কথা বলা হয়েছে। এছাড়া মাস্ক, স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা আবশ্যিক।

আপাতত ৫০ শতাংশ শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অশিক্ষক কর্মীদের স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। এই নির্দেশিকাকে ঘিরেই বিতর্ক তৈরি হয়। যেখানে সংক্রমণ বাড়ছে সেখানে কীভাবে এহেন নির্দেশ দেয় কেন্দ্র? যদিও বিতর্কের মধ্যে কিছুটা বদল এনেছে কেন্দ্র।

বলা হয়েছে, স্কুল খোলা আবিশ্যিক নয়। রাজ্যই এই বিষয়ে শেষ কথা বলবে। এমনকি স্কুল খোলা রাখা এবং শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকার নেবে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়।

যদিও যে রাজ্যগুলি আগামী সপ্তাহ থেকে আবার স্কুল চালু করার পরিকল্পনা করেছে, তাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জারি করা সমস্ত SOP গুলি অনুসরণ করতে হবে বলে নির্দেশিকাতে জানিয়েছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।