ঢাকা: বিশ্বের জঙ্গি হামলার নিরিখে অন্যতম এবং বাংলাদেশ তৈরির পর এখনও পর্যন্ত সবথেকে ভয়াবহ নাশকতা তা অর্থাৎ গুলশন হোলি আর্টিজান হামলায় ধৃতদের ফাঁসির সাজা দিল আদালত। রায় শুনে হাসি হাসি মুখেই ছিল ভয়ঙ্কর নব্য় জেএমবি জঙ্গি রাজীব গান্ধী ওরফে। ২০১৬ সালের ১-২ জুলাই ঢাকার গুলশনে আইএস নাশকতার সে অন্যতম পরিকল্পনাকারী।

বিবিসি জানিয়েছে, আত্মোগপনে থাকা রাজীব গান্ধীর আরও নামগুলি হল, জাহাঙ্গীর আলম, সুভাষ, শান্ত, টাইগার, আদিল। বাকি ৭ জঙ্গির নাম মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, রাকিবুল হাসান রিগ্যান, হাতকাটা সোহেল মাহফুজ, হাদিসুর রহমান সাগর, রাশেদ ইসলাম ওরফে আবু জাররা ওরফে র‌্যাশ, শরিফুল ইসলাম ওরফে খালেদ ও মামুনুর রশীদ ওরফে রিপন।

২০১৬ সালের ১ জুলাই ঢাকার হোলি আর্টিজানে হামলা চালায় আইএস। এই হামলায় দুই পুলিশকর্মী সহ দেশি-বিদেশি ২২ জনকে খুন করে জঙ্গিরা। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দু’জনের মৃত্যু হয়। হামলায় অন্তত ৩০ জন পুলিশকর্মী জখম হন। হামলার পরের দিন ২ জুলাই কমান্ডো অভিযান ‘অপারেশন থান্ডারবোল্ড’-এ পাঁচ জঙ্গিকে নিকেশ করা হন। অভিযানে এক জাপানি ও দুই শ্রীলংকানসহ ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।