ছবি: গুগল

পুজো তো শুরুই হয়ে গিয়েছে৷ হাতে আর মোটেই সময় নেই৷ পার্লারগুলিতেও লম্বা লাইন৷ তাতে কী! কুছ পরোয়া নেহি৷ ঘরে মধু আছে তো? ব্যস! তাতেই হবে৷ এটা নিশ্চয়ই মানবে মধুর মতো উপকারী প্রাকৃতিক ভেষজ তরল খুব কমই আছে৷ খেলেও উপকার৷ মাখলেও উপকার৷ মধুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট৷ যা ত্বককে তরতাজা, প্রাণবন্ত রাখে৷ নিয়মিত মধু ত্বকের বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করে৷ মধুতে প্রচুর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে যা ব্রণ, পিম্পলের অত্যাচার রুখতে সাহায্য করে৷

আজ আপনাদের জানাব এই মধু ব্যবহার করে কীভাবে চটজলদি ত্বককে করে তুলবেন জেল্লাদার, প্রাণবন্ত, সোনালী আভাযুক্ত৷ একইসঙ্গে নরম, কোমলও৷ আজ আমরা শিখে নেব মধু দিয়ে হোয়াইটনিং ফেসপ্যাক তৈরির নিয়ম৷ এই ফেসপ্যাক তৈরি করতে মধু ছাড়াও লাগবে গমের আটা, টাটকা টমেটোর রস, কাঁচা দুধ৷

কীভাবে বানাবেন এই প্যাক! একটি পরিষ্কার বাটিতে ২ চামচ গমের আটা নিন৷ সঙ্গে ১/২ চামচ মধু, ১ চামচ টমেটোর রস৷ এবার তাতে আন্দাজমতো কাঁচা দুধ দিন৷ চামচ দিয়ে ভালোভাবে মিশ্রনটি তৈরি করুন৷ খেয়াল রাখবে মিশ্রনটি যেন স্মুথ পেস্টের মতো হয়৷

এবার ক্লিনজার বা ফেস ওয়াশ দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে হাল্কা করে টাওয়েল দিয়ে মুখ মুছে তাতে ফেসপ্যাকটি লাগান৷ এক্ষেত্রে স্কিন ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন৷ কিংবা আঙুল দিয়েও নিচ থেকে উপরের দিকে প্যাকটি লাগাতে পারেন৷ এক টানে প্যাকটি লাগানোর চেষ্টা করুন৷

এবার প্যাকটি শুকোতে দিন৷ দেখবেন যেন ত্বকে টান না ধরে৷ এরপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে মুখটা ভালো করে ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন৷ মেরে কেটে এরজন্য আপনাকে ২০ মিনিট সময় ব্যয় করতে হবে৷ পুজোর সময় অন্যদের চোখ ধাঁধিয়ে দিতে এটুকু আপনি করতেই পারেন৷