লখনউ: এ যেন ছোট গল্পের কাহিনী। শেষ হয়েও হইল না শেষ। ঠিক তেমনই অবস্থা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবির। বিভিন্ন সরকারি বা বেসরকারি সংস্থায় যার ব্যবহার নিয়ে কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না বিতর্ক।

রেলের টিকিটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবির ব্যবহার করার কারণে সাসপেন্ড করা হয়েছে দুই ব্যক্তিকে। ওই দুই রেল কর্মী ট্রেনের টিকিটে মোদীর ছবি ব্যবহার করেছিলেন। সোমবার তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন- বিতর্কের জেরে মোদীর ছবি সরল এয়ার ইন্ডিয়ার বোর্ডিং পাস থেকে

এর আগে বিভিন্ন সময়ে বিমানের টিকিটে দেখা গিয়েছে মোদীর ছবি। এয়ার ইন্ডিয়ার বোর্ডিং পাসে ব্যবহার করা হতো মোদীর ছবি। এছাড়াও অপর একটি বেসরকারি বিমান পরিষেবা প্রদাণকারী সংস্থার টিকিটেও দেখা গিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর ছবি। নির্বাচনী বিধি লাগু হয়ে যাওয়ার পরেও সেই ছবির ব্যবহার নিয়ে প্রশ্ন ওঠে।

বিতর্ক দেখা দিলে ছবি সরিয়ে ফেলার ব্যবস্থা করে উড়ান কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয়, একটি বিমান সংস্থার টিকিটে ভাইব্র্যান্ট গুজরাতের প্রচারের ছবি দেওয়া হয়েছিল। যা নিয়ে বিতর্ক শুরু হতে সেই ছবি সরিয়ে ফেলা হয়।

আরও পড়ুন- বোর্ডিং পাশ থেকে মোদীর ছবি সরাল জিন্নার বংশধরদের মালিকানাধীন বিমান সংস্থা

সেই ঘটনার এক পক্ষকাল পরে ফের বিতর্কে উঠে এল প্রধানমন্ত্রী মোদীর ছবি। এবার কাঠগড়ায় রেল দফতর। রবিবার উত্তর প্রদেশের বরাবানি রেল স্টেশনে মোদীর ছবি সম্বলিত টিকিট প্রদান করা হয়েছে যাত্রীদের। যদিও বিষয়টি অনিচ্ছাকৃত ভুল বলে দাবি করেছে রেল। এই বিষয়ে এডিএম বলেছেন, “চলতি মাসের ১৩ তারিখে দায়িত্ব বদলের সময়ে পুরনো রোল ব্যবহার করা হয়েছে। এটা ইচ্ছাকৃতভাবে হয়নি। ভুল বশতই এক কর্মী করে ফেলেছেন।” এই ঘটনায় জড়িত দুই কর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এডিএম।