নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: ফের শাসকদলের চিন্তা বাড়িয়ে তৃনমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন একগুচ্ছ নেতা-কর্মী। মঙ্গলবার বিজেপির সদর দফতরে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের উপস্থিতিতে যোগ দেন একাধিক নেতা-কর্মী। যোগ দেন এক অভিনেতাও।

এদিন মুকুল রায়ের নেতৃত্বে বিজেপি যোগ দিতে হাজির হন একগুচ্ছ নেতা-নেত্রী। টলিউডের এক অভিনেতাকে পাশে বসিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন তিনি। সেখানেই জানান যে বিজেপিতে যোগ দিতে এসেছেন তৃণমূলের নেতা-নেত্রীরা। তাঁদের হাতে বিজেপির পতাকা তুলে দেন মুকুল রায়।

আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত তারকেশ্বর বিধানসভার মধ্যে থাকা দুটি গ্রাম পঞ্চায়েত এদিন সম্পূর্ণভাবে বিজেপির দখলে চলে গেল। এদিন উপস্থিত ছিলেন আরামবাগের বিজেপি নেতা তপন রায়। তাঁর নেতৃত্বেই এদিন এলাকার নেতারা বিজেপি অফিসে আসেন।

এমনিতেই অভাবনীয় ভাবে বাংলায় বিজেপি ঝড় ওঠায় যথেষ্ট চিন্তার ভাঁজ পড়েছে খোদ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কপালে। এক ধাক্কায় ২ থেকে ১৮টি আসনে পৌঁছে গিয়েছে বঙ্গ বিজেপি। রাজ্যে এভাবে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত মোটেই ভাল চোখে দেখছেন না মমতা।

ইতিমধ্যে বিজেপির হাতে এসেছে ভাটপাড়া পুরসভা। বিজেপির হাতে আরও তিন-তিনটি পুরসভা। ইতিমধ্যে সেই সমস্ত পুরসভার কাউন্সিলররা বিজেপিতে যোগদান করেছেন। যদিও মুকুল রায়ের দাবি , শুধু দুই কিংবা তিনটে নয়, আগামী কয়েকমাসের মধ্যেই বহু পুরসভাই তাঁদের হাতে চলে আসবে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলকে একের পর এক ধাক্কা দিচ্ছে বিজেপি। এই অবস্থায় তৃণমূলের চাপ বাড়িয়ে ১ হাজার কর্মীকে ভাঙিয়ে এনেছে বিজেপি।

গত রবিবারই প্রায় এক হাজার তৃণমূল সমর্থক বিজেপিতে যোগ দেন। বারুইপুরে বিজেপির কার্যালয়ে সভাপতি সুনীপ দাসের হাত থেকে পতাকা তুলে নেন রাজপুর-সোনারপুর পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের শতাধিক তৃণমূল কর্মী। ধপধপি-১, ২, শঙ্করপুর-২, রামনগর-১, বেগমপুর-২, হরিহরপুর থেকেও তৃণমূল এবং সিপিএমের অনেকে বিজেপিতে যোগ দেব এইদিন।

এদিকে, মঙ্গলবারই সন্দেশখালির ন্যাজাটে যান মুকুল রায়। সেখানে গিয়ে, তিনি বলেন, ”এটা পরিকল্পিত খুন৷ আমাদের বিজেপি কর্মীদের টার্গেট করে মারা হয়েছে৷ এখনও নিখোঁজ আছে বেশ কয়েকজন কর্মী। শেখ শাহজাহানের নেতৃত্বে পরিকল্পিতভাবে হামলা হয়েছে৷ আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর করব। এমনকি তিনি বলেন এই মুখ্যমন্ত্রী খুনি মুখ্যমন্ত্রী। সমস্ত রিপোর্ট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও কেন্দ্র পার্টিতে লিখিতভাবে জানাবো। এইভাবে চলতে পারে না।”