রাজশাহী: এমনিতেই ভারত-পাক সীমান্তের উত্তপ্ত পরিস্থিতি৷ তার জেরে বাংলাদেশ সীমান্তেও চলছে বিএসএফের কড়া পাহারা৷ পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত সংলগ্ন বাংলাদেশের ভূমিতে সেদেশের জঙ্গি সংগঠন জেএমবি চক্র ছড়িয়ে৷ সেই চক্রের দুই জঙ্গিকে ধরা পড়ল৷

ঘটনাস্থল মালদহ লাগোয়া বাংলাদেশের চাঁপাইনবাবগঞ্জ৷ জেএমবি জঙ্গি  ও জামাত ইসলামির শক্তিশালী ঘাঁটি এই এলাকা৷

পড়ুন: উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে স্যালুট কম্বমপতি নচিকেতার

জানা গিয়েছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোলের আঝইর এলাকা থেকে লিফলেট সহ জেএমবির দুই জঙ্গিকে ব়্যাব (ব়্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন) গ্রেফতার করে বলে জানা গিয়েছে৷ এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে৷

সূত্রের খবর ধৃতরা সীমান্তবর্তী এলাকায় গোপনে জেএমবির কাজ করত৷ এই ধৃতরা হল, বাইরুল ইসলাম (৩৪) ও শফিকুল ইসলাম (৪৮)। এদের বাড়ি চাঁপাইনবাগবঞ্জের নাচোল উপজেলার ফুরসেদপুর গ্রামে। ধৃতরা সীমান্তবর্তী এলাকায় গোপন ডেরায় জামেয়েতে মুজাহিদ্দিন বাংলাদেশ(জেএমবি)র গোপন শিবির চালাচ্ছিলো।

পড়ুন: পাকিস্তানেই রয়েছে অসুস্থ মাসুদ আজহার: পাক বিদেশমন্ত্রী

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ র‌্যাব একটি দল ওই এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব৷ সেই অভিযানে বেশ কয়েকজন জেএমবি জঙ্গি পালিয়ে গেলেও বাইরুল ও শফিকুল ধরা পড়ে। এরপর তাদের ওই গোপন ডেরায় তল্লাশি চালিয়ে সেখান থেকে বেশ কিছু জিহাদি বই, লিফলেট ও হ্যান্ডবিল উদ্ধার করা হয়।

জেএমবি বাংলাদেশের অন্যতম জঙ্গি সংগঠন৷ এদের শাখা ছড়িয়ে রয়েছে ভারতে৷ বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের দুই জেলা মুর্শিদাবাদ ও মালদহে৷ পূর্ব বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণের ঘটনায় উঠে আসে জেএমবি মদতে পশ্চিমবঙ্গকে ঘাঁটি করে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খুনের চক্রান্ত ও অস্থির পরিবেশ তৈরি করার বিষয়৷