নয়াদিল্লি: বিগত কয়েকদিন ধরেই বাড়ছে শীতের প্রাবল্য আর তার সঙ্গে কুয়াশার দাপট। আর সেই কারণে কম দৃশ্যমানতা থাকার কারণে ভারতীয় রেলের নর্থান রিজিয়নে ১৯ টি ট্রেন দেরীতে চলছে এমনটাই জানানো হয়েছে রেলওয়ে আধিকারিকদের তরফ থেকে।

বিভিন্ন জায়গাতে অধিক কুয়াশা থাকার কারণে ট্রেন ছাড়তে দেরী হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন রেলের আধিকারিকেরা। যদিও আবহাওয়ার পূর্বাভাষে জানানো হয়েছে উত্তরের কয়েকটি জায়গাতে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে ৩-৪ ডিগ্রি তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

নর্থান রিজিয়নের এক উচ্চ পদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন ভুবনেশ্বর নিউ দিল্লি-রাজধানী এক্সপ্রেস ৭ঘণ্টা দেরীতে ছেড়েছে। এছাড়াও নন্দেদ- অমৃতসর সাচখন্দ এক্সপ্রেস নির্দিষ্ট সময়ের থেকে ৬ ঘণ্টা দেরীতে ছেড়েছে। এছাড়াও জব্বলপুর হজরত নিজামুদ্দিন এক্সপ্রেস, হায়দরাবাদ নিউ দিল্লি তেলেঙ্গানা এক্সপ্রেস এবং লোকমান্য তিলক হরিদ্বার এক্সপ্রেস নির্দিষ্ট সময়ের থেকে ৫ ঘণ্টা দেরীতে ছেড়েছে। এছাড়াও কাত্রা ম্যাঙ্গালোর নবজুগ এক্সপ্রেস, হাওড়া নিউ দিল্লি পূর্বা এক্সপ্রেস নির্দিষ্ট সময়ের থেকে বেশ কয়েকঘণ্টা দেরীতে ছেড়েছে।

যদিও ভারতীয় মৌসম ভবনের তরফ থেকে জানা গিয়েছে বেশ কয়েক জায়গাতে রীতিমত ভারী কুয়াশা রয়েছে। জানানো হয়েছে পূর্ব রাজস্থান, পশ্চিম মধ্যপ্রদেশ এবং বিহারে রীতিমত ঘন কুয়াশা রয়েছে। সেই কারণে দৃশ্যমানতা কম রয়েছে।

রাজধানী দিল্লির আবহাওয়ার পরিস্থিতি কিছুটা হলেও উন্নত হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। খুব খারাপ থেকে উন্নীত হয়েছে খারাপে। অর্থাৎ এই মুহূর্তে দেশের বেশ কয়েকটি জায়গাতে রীতিমত জটিল পরিস্থিতি হয়ে রয়েছে আবহাওয়ার। তবে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এই পরিস্থিতি পরিবর্তন হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I