স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় রাজ্য সরকারের তথ্য সংস্কৃতি দফতর এবং পশ্চিমবঙ্গ নাট্য আকাদেমির উদ্যোগে ২০১৯ অষ্টাদশ নাট্য মেলার সূচনা হল৷ এই বছর নাট্যমেলার আসর বসেছে কলকাতার সন্নিকটবর্তী জেলা উত্তর ২৪ পরগণার পানিহাটি লোকসংস্কৃতি ভবনে।

রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ এবং পশ্চিমবঙ্গ নাট্য একাডেমীর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত অষ্টাদশ নাট্যমেলা উদ্বোধন হল রবিবার সন্ধ্যায়। মঞ্চে প্রদীপ জ্বালিয়ে এই বছরের নাট্যমেলার উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট নাট্যকার অধ্যাপক অশোক মুখোপাধ্যায়, স্থানীয় দমদম কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়, পানিহাটি কেন্দ্রের তৃনমূল বিধায়ক তথা রাজ্য বিধানসভার মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ, পশ্চিমবঙ্গ নাট্য অ্যাকাডেমির সচিব বরুণ কুমার সাহা, বারাকপুরের মহকুমা শাসক আবুল কালাম আজাদ ইসলাম, পানিহাটির বিদায়ী পুর প্রধান স্বপন ঘোষ সহ অন্যান্য বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্বরা এবং পানিহাটি পুরসভার বিদায়ী জন প্রতিনিধিরা।

নাট্য মেলা উদ্বোধন করে দমদম কেন্দ্রের সাংসদ সৌগত রায় বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী এই বছর নাট্য উৎসবকে কলকাতার বাইরে গোটা রাজ্যে ছড়িয়ে দিয়েছেন। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় নাটক অনুষ্ঠিত হবে। কালিম্পংয়েও নাটক দেখতে পারবেন সেখানকার দর্শকরা। বলতে কোন বাঁধা নেই রাজ্যে এখন নাটকের পরিকাঠামো তৈরি হয়ে গিয়েছে। মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী নিজে তথ্য সংস্কৃতি দফতরের মন্ত্রী। তিনি এই বিষয়গুলো নিজেই দেখেন। নাট্য মেলাকে রাজ্য জুড়ে সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য আমি রাজ্য সরকার তথা পশ্চিমবঙ্গ নাট্য আকাদেমিকে ধন্যবাদ জানাই।’

রাজ্য বিধানসভার মুখ্য সচেতক তথা পানিহাটির বিধায়ক নির্মল ঘোষ বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় নাট্যমেলার উদ্বোধন হল পানিহাটিতে। মূলত বাংলার নাটককে আরও সমৃদ্ধ করতেই নাট্যমেলার আয়োজন করা হয়েছে। চার দিন ব্যাপী মানুষ পানিহাটি লোকসংস্কৃতি ভবনে বিনা পয়সায় নাটক দেখতে পারবে। এই নাট্য মেলায় আগামী চার দিন বিভিন্ন নাটক অনুষ্ঠিত হবে। আসলে নাটক মানুষের জীবনের আয়না। নাটকের মাধ্যমে সমাজের প্রতিচ্ছবি উঠে আসে।

নাট্যমেলার উদ্বোধনের পর প্রথম দিনের নাটক মঞ্চস্থ হল রবিবার রাতেই। নিউ আলিপুর প্রাচ্যের নাটক ‘লাল শালু’ মঞ্চস্থ হল এদিন। পানিহাটি লোকসংস্কৃতি ভবনে আগামী ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই নাট্যমেলা। চার দিন ধরে চলা এই নাট্য মেলায় মঞ্চস্থ হবে কালিন্দী ব্রাত্যজনের নাটক মীরজাফর, যে নাটকে অভিনয় করেছেন ব্রাত্য বসু সহ বহু নামী শিল্পীরা। শেষ দিন থাকছে অর্পিতা ঘোষের নির্দেশনায় নাটক অচলায়তন।