ইসলামাবাদ: আত্মঘাতী হামলা ইসলাম বিরোধী৷ এই মর্মে ফতোয়া জারি করল পাকিস্তানের ১৮০০ জন মুসলিম ধর্মগুরু৷ তাদের বক্তব্য ইসলামি শরীয়ত অনুসারে আত্মঘাতী হামলা সম্পূর্ণ অবৈধ। যে দর্শনের ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন যেমন, ইসলামিক স্টেট, তেহরিক ই তালিবান, আল কায়েদা, বোকো হারাম ও অন্যান্য নিষিদ্ধ সংগঠন ভুল পথে পরিচালিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে এই মৌলবীরা৷

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলি বহু বছর যাবৎ সন্ত্রাসে বিদ্ধ৷ আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের পরিমাণ ক্রমশই বাড়ছে৷ বিশেষত ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠিগুলির মধ্যে আত্মঘাতী বিস্ফোরণের প্রবণতার হার বেশি৷ সেই বিষয়কেই সামনে রেখেই মঙ্গলবার এই ফতোয়া জারি করে মৌলবীরা৷

আত্মঘাতী বিস্ফোরণকে অনৈতিক ও ইসলাম বিরোধী বলে আখ্যা দিয়ে মৌলবীরা জানিয়েছে এর ফলে ইসলামের আসল পথ থেকে সরে আসছে জঙ্গিরা৷ এতে সাধারণ মানুষের প্রাণহানি হচ্ছে৷ আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের ফলে ভুল পথে হাঁটছে তথাকথিত জেহাদ৷

সন্ত্রাসবাদের বিরোধীতা করতেই এই ফতোয়া বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের মুসলিম ধর্মগুরুদের সংগঠন৷ ২০০০ সাল থেকে সন্ত্রাসবাদের কবলে হাজার হাজার নিরীহ মানুষ প্রাণ হারিয়েছে৷ তাই মৌলবিদের মতে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ইসলামের চোখে হারাম বা পাপ৷ ইসলামিক রাষ্ট্রের ভিত্তি শান্তি৷ সেই ভিতকে নড়িয়ে দিচ্ছে এই ধরণের বিস্ফোরণ৷ তাই অবিলম্বে এই ঘটনা বন্ধ হওয়া দরকার বলে মত পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট মামনুন হুসেইনের৷
এই ফতোয়া ইসলামের গোল্ডেন রুলকে ভিত্তি করে তৈরি৷ ইতিমধ্যেই তা জারি করা হয়েছে পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে৷