ভাডোহী: ২০১৯-এ ঘটে যাওয়া দিশা এবং উন্নাও ঘটনার পরে নড়েচড়ে বসেছিল প্রশাসন। পাশাপাশি ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছিল সাধারণ মানুষ। সরাসরি তারা প্রশ্ন তুলেছিল প্রশাসনের দিকে। পাশাপাশি চেয়েছিল দোষীদের কঠোর শাস্তি। কিন্তু পরিস্থিতির যে খুব একটা বদল হয়নি তা ফের বোঝা গেল। উত্তরপ্রদেশের ভাডোহী এলাকার এক ১৮ বছরের বিবাহিতা মহিলাকে ৫ দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

জানা গিয়েছে, ওই ব্যাক্তি নির্যাতিতা মহিলার গ্রামেই থাকতেন। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম বিশাল সরোজ। অভিযোগ, ওই মহিলা তার আত্মীয়ের বাড়ি আসার পরে মায়ের মিথ্যা অসুখের কথা বলে নিজেদের বাড়ি নিয়ে গিয়েছিল ওই ব্যাক্তি। তারপরে একটি ঘরে আটকে রেখে দিনের পর দিন ধরে তার উপরে অত্যাচার চালিয়েছিল ওই ব্যক্তি। বুধবার ওই মহিলার আত্মীয়রা ওই অভিযুক্তের মায়ের শরীরের খবর জানতে গেলে খবর পান ওই মহিলা বাড়ি ফেরেনি। তারপরে তারা পুলিশের কাছে গিয়ে সবটা জানিয়েছিল।

ওই মহিলাকে একটি ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়েছিল। জমির মাঝখানে ওই ঘরটি সরোজের বলেই জানিয়েছে পুলিস। উদ্ধার করার পরে ওই মহিলাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।