কলকাতা:  প্রায় ২৮ ঘন্টা পার। রাজ্যে সেনা মোতায়েনের প্রতিবাদে এখনও নবান্নেই রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেনা না সরানো পর্যন্ত তিনি একচুলো নবান্ন থেকে সরবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরই মধ্যে কেন্দ্রের তরফে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, ভারতীয় সেনাকে দিয়ে অসত্য এবং বিকৃত তথ্য দেওয়া হচ্ছে। এমনকি, সেনাকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাঁর। এটা একেবারেই লজ্জাজনক ঘটনা। একই সঙ্গে পার্থবাবু জানান, সেনা মোতায়েনের আগে রাজ্যের অনুমোদন নিতে হয়।  এক্ষেত্রে অনুমোদন না নিয়েই কাজ করে যাচ্ছে সেনা। রাজ্যের ১৮টি জায়গায় সেনা মোতায়েন করা হচ্ছে।  রাজ্যকে না জানিয়ে সেনা মোতায়েন নজিরবিহীন ঘটনা। দেশের জন্যে যারা জীবন দেয়, তাদেরকে দিয়ে রাজনীতি করানো খুব দুঃখজনক। সেনার প্রতি বিষাদগার নয়, সম্মান আছে।

আজ শুক্রবার নবান্নে মুখোমুখি হয়ে পার্থবাবু আরও বলেন, সেনাকে দিয়ে না বলিয়ে এই বিষয়ে কেন্দ্রের কথা বলা উচিত। শুধু তাই নয়, কেন্দ্রের মন্ত্রীরা তথ্য নির্ভর কোনও বক্তব্যও পেশ করছে না বলে দাবি তাঁর। মোদী সরকার সর্বত্র রাজনীতিকরনের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। তবে  গণতন্ত্র থাকবে না মোদীতন্ত্র থাকবে সেটাই মানুষ বিচার করবে। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোতে যেভাবে আঘাত করা হচ্ছে তা মানুষ বুঝিয়ে দেবে বলে মন্তব্য শিক্ষামন্ত্রীর।