নয়াদিল্লি: ১৩ ডিসেম্বর৷ ভারতের গণতন্ত্রের ইতিহাসের কালো দিন৷ ২০০১ সালে এই দিন সংসদের ভেতর ঢুকে হামলা করে জঙ্গিরা৷ শহিদ হন নিরাপত্তা কর্মীরা৷ বৃহস্পতিবার সেই হামলার ১৭ বছর পূর্তি৷ সেই উপলক্ষ্যে সংসদ ভবনের বাইরে শহিদদের বীরত্ব ও সাহসিকতাতে স্যলুট জানিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷

ট্যুইট করে নরেন্দ্র মোদী লেখেন, ‘‘২০০১ সালে সংসদ হামলায় যারা শহিদ হয়েছিলেন তাদের বীরত্ব ও সাহসিকতাকে স্যলুট জানাই৷ তাদের শৌর্য ও সাহসিকতা প্রত্যেক ভারতীয়কে উদ্বুদ্ধ করে৷’’

মোদী ছাড়াও শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, স্পিকার সুমিত্রা মহাজন, অমিত শাহ, লালকৃষ্ণ আডবানি, ইউপিএ চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধী, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং প্রমুখ৷

২০০১ সালের ১৩ ডিসেম্বর নিরাপত্তারক্ষীদের এড়িয়ে সংসদ ভবনে ঢুকে পড়ে পাঁচ লস্কর-ই-তইবা ও জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গি৷ তার ৪০ মিনিট আগে সংসদ মুলতবি হয়ে যায়৷ সংসদের ভেতরে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারি বাজপেয়ী, কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী সহ ১০০ জন সাংসদ৷ বাইরে হঠাৎই গুলির শব্দে চমকে ওঠেন সকলে৷ জঙ্গিদের এলোপাথারি গুলিতে মৃত্যু হয় ১৪ নিরাপত্তা রক্ষীর৷