প্রতীকী ছবি

আগ্রা: ৫০ বছরের এক মহিলাকে ধর্ষণ করে খুন করার ঘটনা সামনে আসার পর থেকেই ফের উত্তাল উত্তরপ্রদেশ। ইতিমধ্যে ওই মহিলার পরিবারের তরফে দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ এবং তার ভিত্তিতে শুরু হয়েছে তদন্ত। তবে এবারে সামনে এল এক দলিত নাবালিকাকে ধর্ষণ করার ভিডিও।

জানা গিয়েছে, জোর করে ওই নাবালিকা কিশোরীকে চাষের খেতে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়। তারপরে সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল করা হয়।

জানা গিয়েছে এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। আগ্রার ফিরজাবাদ এলাকায় ঘটেছে এই ঘটনা।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ২৮ বছরের ওই ব্যক্তি সম্পূর্ণ ঘটনাটি মোবাইলে রেকর্ড করে রাখে ব্ল্যাকমেল করার উদ্দেশ্যে। জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে গত ১ ডিসেম্বর। সেই সময়ে ওই মহিলা ঘরের বাইরে গিয়েছিল। ওই সময়েই অভিযুক্ত ভুরি সিং ওই ১৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ করে। আর অভিযুক্ত ব্যক্তির বন্ধু অনিল কুমার এই সম্পূর্ণ ঘটনাটি রেকর্ড করে রাখে। এই নিয়ে একের পর এক এই ধরনের ঘটনা সামনে আসাতে যথেষ্ট সমালোচিত উত্তর প্রদেশ প্রশাসন।

জানা গিয়েছে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তি ওই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করার ভয় দেখায় ওই নাবালিকা কিশোরীকে। পাশাপাশি সম্পূর্ণ ঘটনাটি কাউকে না বলার ও ভয় দেখায়। আর সেই ভিডিও নিয়ে ভয় দেখিয়েই বিগত এক মাস ধরে নাগাড়ে অভিযুক্ত দুইজন ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে। ইতিমধ্যে পুলিশের তরফে বিষয়টি নিয়ে শুরু হয়েছে তদন্ত। ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ দায়ের করাও হয়েছে। কিন্তু বারংবার নারী নির্যাতন এবং ধর্ষণের ঘটনা সামনে আসাতে বিরোধীদের তোপের মুখে যোগী রাজ্য। প্রশ্ন উঠছে সেখানকার প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিয়েও।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.