ঢাকা: চলতি বছর ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষ। সরকারি ভাবে জানানো হয়েছে সারা দেশে শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষের জন্য নানা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে সারা বাংলাদেশে। বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষের নানা অনুষ্ঠান নিয়ে আশাবাদী উদযাপন জাতীয় কমিটির চেয়ারম্যান কামাল চৌধুরী। এসবের মধ্যে শিক্ষা দফতর সূত্রে জানানো হল বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের নামে এবার ১৫ কলেজ সরকারি অনুমোদন পাবে।

বঙ্গবন্ধুর নামে ও পরিবারের নামে ১৫টি কলেজ সরকারি অনুমোদন পেতে চলেছে আগামী দিনে। বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ২৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সরকারি করবে। অনুমোদন দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা তথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে ১৫টি বেসরকারি কলেজ বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে আগামী দিনে সরকারি কলেজ করা হবে। যদিও এই কাজে আরও কিছুদিন সময় লাগবে।

কলেজগুলোর পরিদর্শন করে আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে শিক্ষা দফতরে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা দফতরের মহাপরচিালককে। কলেজগুলির মধ্যে রয়েছে ঢাকার মিরপুরের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মহিলা কলেজ, রাজবাড়ীর পাংশার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কলেজ, ফরিদপুরের বোয়ালমারির খরসূতী বঙ্গবন্ধু কলেজ, মাদারীপুর সদরের ছিলাচর বালিকান্দি শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কলেজ এবং মাদারীপুরের রাজৈরের শেখ রাসেল মহাবিদ্যালয় ইত্যাদি। এই কলেজগুলি সরকারি হচ্ছে।

তবে আগামী দিনে বাগেরহাট মোংলা পোর্টের বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ, ঝিনাইদহের কালিগঞ্জের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেমোরিয়াল মহাবিদ্যালয় ও মহেশপুরের শেখ হাসিনা পদ্মপুকুর ডিগ্রি কলেজ, মাগুরার শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু কলেজ এবং বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জের দেশরত্ন শেখ হাসিনা মহাবিদ্যালয়কেও সরকারি করা হবে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও আরও কিছু কলেজকে সরকারি করা হবে।