নয়াদিল্লি: করোনা আতঙ্কের মাঝে বন্ধ করে দেওয়া হলো ৮৪ টি ট্রেন। ২০ মার্চ শনিবার থেকে ওই ট্রেনগুলো চলবে না বলে জানিয়ে দিলো ভারতীয় রেল। ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ট্রেনগুলি। এই নিয়ে মোট ১৫৫ টি ট্রেন বন্ধ করল রেল কর্তৃপক্ষ।

একদিকে ওই ট্রেন গুলিতে পর্যাপ্ত পরিমাণ টিকিট বিক্রি হয়নি ও অন্যদিকে রয়েছে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। তাই আপাতত ১১ দিন ওই ট্রেন গুলি না চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল।

রেল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, ওই ট্রেনে যেসব যাত্রীর টিকিট কাটা ছিল তাদের পুরো টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়া হবে, টিকিট বাতিল করার জন্য কোনও টাকা কাটা হবে না। সব যাত্রীকে আলাদাভাবে ট্রেন বাতিলের খবর জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই রেলের জোনাল হেড কোয়ার্টার গুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যাতে, জ্বর সর্দি কাশি থাকলে ক্যাটারিং এর কাজে কোন কর্মীকে লাগানো না হয়।

করোনা আতঙ্কে স্কুল কলেজ সিনেমা হলসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে৷ সেই তালিকায় যুক্ত হচ্ছে রেস্তোরাঁ ৷ এর জন্য সরকারের দ্বারস্থ হয়েছে ন্যাশনাল রেস্তোরাঁ অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া তথা NRAI৷ ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশের সব রেস্তোরা বন্ধ রাখার কথা বলা হয়েছে৷

পাশাপাশি মঙ্গলবার থেকে বন্ধ করা হয়েছে ভারতের ঐতিহ্যবাহী সৌধ তাজমহল। পর্যটকদের ভিড় এড়াতেই পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্য আপাতত কিছুদিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বাণিজ্য নগরী মুম্বইতে ৫০ শতাংশ কর্মীকে বাড়িতে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। করোনা রুখতেই প্রাথমিক ভাবে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

বাইরের বিভিন্ন দেশের অবস্থা আরও খারাপ, করোনা আতঙ্কের কারণে বিশ্বের অন্যান্য দেশের নাগরিকদের প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে ইজরায়েল সরকার। করোনা আক্রান্ত হয়ে ব্রিটেনে মৃত্যু হয়েছে ১০৪ জনের। ফ্রান্সে মৃতের সংখ্যা ৯১ ছুঁয়েছে। সব মিলিয়ে করোনা কাটায় কাঁপছে গোটা বিশ্ব।