কলকাতাঃ  আজ শুক্রবার ‘মাইক্রো মুন’ বা ক্ষুদ্রতম চাঁদ দেখতে সাক্ষী থাকবেন গোটা বিশ্বের মানুষ। স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে এদিন ১৪ থেকে ৩০ শতাংশ ছোট দেখা যাচ্ছে এই চাঁদ। এদিন সন্ধ্যার পর থেকেই ‘সবথেকে ছোট এই চাঁদ দেখা যাচ্ছে। কলকাতার আকাশেও ক্ষুদ্রতম এই চাঁদ দেখা যাচ্ছে। ফুল মুন হিসাবে সেটিকে দেখা দিলেও কিন্তু আকারে অনেকটাই ছোট।

গবেষকরা বলছেন, দু লক্ষ ৫১ হাজার ৬৫৫ মাইল দূরে চাঁদ অবস্থান করলে তা ক্ষুদে চাঁদ হিসেবেই বিবেচনা করা হয় বিজ্ঞানের ভাষায়। প্রতি ১৩ বছর পরপর চাঁদ তার নিজস্ব কক্ষপথ ভ্রমণ করে পৃথিবী থেকে এই দূরত্বে অবস্থান নেয়। ১৩ বছর পর আজ সেই মাহেন্দ্রক্ষণ।

এর আগে ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে ক্ষুদ্রতম চাঁদ দেখেছিল গোটা পৃথিবী। ভারতের অ্যাস্ট্রোনমি বিভাগ জানিয়েছে, পূর্ণিমা থাকলেও শুক্রবার সন্ধ্যা থেকেই এই চাঁদ দেখা যাবে।

উপবৃত্তাকার কক্ষপথের কারণে চাঁদ কখনও পৃথিবীর সামনে আসে, কখনও দূরে চলে যায়। ১৩ সেপ্টেম্বর চাঁদ পৃথিবী থেকে দূরতম স্থানে অবস্থান করবে। পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব ২ লাখ ৫১ হাজার ৬৫৫ মাইল হলেই মাইক্রো ধরা হয়। কিন্তু এবার এর চেয়েও ৮১৬ মাইল দূরে থাকবে চাঁদ। আর সুপার মুনের ক্ষেত্রে পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব হয় ২ হাজার ৩৯ মাইল বা এর চেয়ে কম। মাইক্রো মুন খালি চোখেই ভালোভাবে দেখা যাবে। তবে এই ক্ষেত্রে চাঁদ দেখার ক্ষেত্রে আশঙ্কা ছিল যে মেঘলা আকাশ। কিন্তু সেই আশঙ্কা নেই। রাতের আকাশে সাক্ষী থাকুন এই মহাজাগতিক ঘটনার।