নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার আওতায় ব্যবসা শুরু করার জন্য টাকা দিচ্ছে সরকার। এই প্রকল্পের আওতায় গ্রাহকদের লোন সরবরাহ করা হয়। এই লোনগুলিকে ৩ টি ক্যাটেগরিতে ভাগ করা হয়। ৫০ হাজার থেকে শুরু করে ১০ লক্ষ টাকা অবধি লোন দেওয়া হয়।

প্রথম ধাপের নাম শিশু লোন। এই শিশু লোনে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হয়। এছাড়া এই লোনের ওপর আর একটি লোন দেওয়া হয়, যেখানে ৫০ হাজার থেকে ৫ লাখ টাকা অবধি লোন দেওয়া হয়। আর তিন নম্বর বিভাগে সর্বাধিক লোন দেওয়া হয়। এই বিভাগে পাঁচ লক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়া হয়।

যে কোনও ভারতীয় নাগরিক যিনি নিজের ব্যবসা করতে চান তিনি এই সরকারী প্রকল্পের সুবিধা নিতে পারেন। এছাড়া যদি কোনও ব্যক্তি তাঁর ব্যবসার বিস্তার ঘটাতে চান, তবে তিনিও লোন পেতে পারেন।

এই লোন পেতে হলে বেশ কিছু ডকুমেন্ট জমা দিতে হবে। এর মধ্যে রয়েছে বাড়ি-জমির প্রমাণপত্র, ব্যবসার যন্ত্রপাতি থাকলে তাঁর প্রমাণপত্র, পাসপোর্টের আকারের ফটো, ব্যবসায়ের শংসাপত্র এবং ব্যবসার ঠিকানা।

এই প্রকল্পের আওতায় লোন নেওয়া কোনও ব্যক্তি নিজের মালিকানায়, অংশীদারিত্বে, ক্ষুদ্র শিল্প, মেরামতের দোকান, ট্রাকের মালিক, খাদ্য সম্পর্কিত ব্যবসা, মাইক্রো উৎপাদনকারী ব্যবসা করতে পারেন।

কীভাবে এই লোন পাবেন?

এই লোন পেতে হলে প্রধানমন্ত্রীর মুদ্রা যোজনার আওতায় লোনের জন্য সরকারি ব্যাংকে আবেদন করতে হবে। সমস্ত ডকুমেন্ট জোগাড় করতে হবে। ে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা ওয়েবসাইটে এর ফর্ম দেওয়া রয়েছে। সেখানে বিস্তারিত তথ্যও মিলবে। ফর্মটি অনলাইনে ডাউনলোডও করা যায়।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।