কলকাতা:  কলকাতার বিভিন্ন সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর হাওড়ার বঙ্কিম সেতুর মেরামতি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেএমডিএ। এর জন্য আগামী ২৩,২৪ ও ২৫ আগষ্ট সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল আংশিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। আজ মঙ্গলবার হাওড়া পুলিশ কমিশনারের অফিসে এই বিষয়ে ট্রাফিক, কেএমডিএ, পুরসভা, আরটিও,ফিস মার্কেট অ্যাসোসিয়েশন সহ সব পক্ষের বৈঠকের পর চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

হাওড়া ষ্টেশন সংলগ্ন বঙ্কিম সেতুর অবস্থা দীর্ঘদিন ধরেই বেহাল। সেতুটি বর্তমানে কি অবস্থায় আছে সেটা জানার জন্য সেতুর মেরামতি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই কারণেই মঙ্গলবার আলোচনার পর এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এরপর বৈঠক হবে বাস মালিকদের সঙ্গেও। রেলের সঙ্গেও আলোচনা হবে।

এদিন কেএমডিএ সহ অন্যান্যদের সঙ্গে প্রায় দেড় ঘন্টা বৈঠকের পর এক সাংবাদিক বৈঠকে হাওড়া সিটি পুলিশের ডিসি ট্রাফিক ওয়াই রঘুবংশী বলেন, এই কাজের জন্য যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে ২৩ আগস্ট ভোর চারটে থেকে ২৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত। কোনও গাড়ি বা বাস চলাচল বন্ধ করা হচ্ছে না। শুধুমাত্র গাড়ি ঘুরপথে চালানো হবে। বঙ্কিম সেতুও পুরোপুরি বন্ধ করা হচ্ছে না।

তবে চাঁদমারি (বাঙালবাবু) ব্রিজের উপর যান চলাচলের চাপ কিছুটা বাড়বে। সে কারণে পর্যাপ্ত ট্রাফিকের বন্দোবস্ত করা হবে। যে যে রুট ধরে গাড়িগুলি ঘোরানো হবে তার নির্দেশিকা সাইন বোর্ডে চিহ্নিত করা থাকবে। হাওড়া রেলওয়ে সাইড থেকে যে সব গাড়ি বঙ্কিম সেতু উঠে দক্ষিণ হাওড়ার দিকে যাচ্ছে সেই অংশ বন্ধ থাকবে। সরাসরি হাওড়া স্টেশন থেকে বঙ্কিম সেতুতে উঠতে পারবে না।

২৩ আগস্ট সকাল থেকে রুট অনুযায়ী যান চলাচল শুরু হবে। বঙ্কিম সেতুর উপর লেন দিয়ে কত গাড়ি যায় তার জন্য ৩ দিন ধরে মুল্যায়ন করা হয়েছিল হাওড়া সিটি পুলিশের পক্ষ থেকে। সেই পর্যবেক্ষণ থেকে উঠে এসেছিল কিছু গাড়ি শিবপুর, কিছু গাড়ি পঞ্চাননতলা রোড এবং কিছু গাড়ি ময়দানে এসে শেষ হয়।

শিবপুরগামী গাড়ি সরাসরি হাওড়া রেলের সামনে দিয়ে শিবপুর গ্র্যান্ড ফরশো রোড ধরে চলে যাবে দক্ষণ হাওড়ায়। পঞ্চাননতলা এবং ময়দান রুটের বাস হাওড়া স্টেশনের শরৎ স্ট্যাচু হয়ে ঈশ্বর চন্দ্র বোস রোড দিয়ে গিয়ে পঞ্চাননতলা রোড ও ময়দানে ভাগ করে দেওয়া হবে। ময়দানে যাবে যেই গাড়িগুলি সেই গাড়িগুলি ব্রীজের নিচে মাছ বাজারের বাম দিকদিয়ে গিয়ে ময়দানে পৌছোবে। অপরদিকে যে গাড়িগুলি পঞ্চাননতলা রোডে যাবে সেই গাড়িগুলি ডানদিকে গিয়ে হরিমোহন বোস রোড হয়ে চাঁদমারি ব্রীজ ধরে, ফাঁসিতলা হয়ে পঞ্চাননতলা রোডে এসে পড়বে। এই ব্যবস্থায় চাঁদমারি ব্রীজে ট্রাফিক ভীড় বাড়বে। এর জন্য অতিরিক্ত ট্রাফিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভেলপমেন্ট অথরিটি বা কেএমডিএ-এর তরফে ইতিমধ্যে আবেদন করা হয়েছে যে, আগামী ২৩, ২৪ ও ২৫ আগস্ট তিন দিন প্রায় ৭২ ঘণ্টা সেতুটি মেরামতি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার কাজ চলবে। সেই কারণে ব্রিজটি বন্ধ রাখার আবেদন জানানো হয়েছে। এই কারণেই মঙ্গলবার সিটি ট্রাফিক পুলিশ সহ অন্যান্যদের সঙ্গে বৈঠকে বসে কেএমডিএ। এদিকে, এই কাজের জেরে ওই তিন দিন হাওড়া স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় তীব্র যানজটের আশঙ্কা থাকছে।

হাওড়া শহরে রেললাইনের উপর যে ব্রিজগুলি রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই বঙ্কিম সেতু। এর আগে গত ২০১৭ সালে সেতু পরীক্ষা করে দেখেছিল রাইটসের এক প্রতিনিধি দল। প্রাথমিক ভাবে সেতুটি মজবুত বললেও বেশ কিছু মেরামতির নির্দেশ দিয়েছিলেন তারা। মেরামতি হলেও বিপদের শঙ্কা এখনও কাটেনি। এই কারণেই ফের ব্রিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দেখা হবে।