নিউইয়র্ক: ২০১৪’র চ্যাম্পিয়নকে উড়িয়ে যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেলেন রাফায়েল নাদাল। যদিও শেষ ষোলোর বাধা টপকানোর পথে একটি সেট খোয়াতে হয় দ্বিতীয় বাছাই রাফাকে।

চলতি ইউএস ওপেনের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার মারিন চিলিচকে ৪ সেটের লড়াইয়ে পরাস্ত করেন নাদাল। প্রথম দুটি সেটে লড়াই চলে তুল্যমূল্য। তবে শেষ দুটি সেটে একাধিপত্য বজায় রাখেন নাদাল। তৃতীয় ও চতুর্থ সেট মিলিয়ে এক সময় টানা ৯টি গেম জেতেন রাফা। শেষ ১৫টি গেমের মধ্যে ১২টি জিতে শেষ আটের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেন স্প্যানিশ তারকা। সব মিলিয়ে ম্যাচের ফল দাঁড়ায় নাদালের অনুকূলে ৬-৩, ৩-৬, ৬-১, ৬-২।

এই নিয়ে মোট ৯ বার ফ্লাশিং মেডোর কোয়ার্টার ফাইনালে পৌছলেন রাফায়েল। সব মিলিয়ে ৪০ বার কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্টের শেষ আটে জায়গা করে নিলেন তিনি।

জয়ের পর নিজের আবেগ লুকিয়ে রাখেননি নাদাল। তিনি বলেন, ‘এখানে খেলতে নামার আবেগ বলে বোঝানো সম্ভব নয়। খেলাটাকে আমি ভীষণ ভালোবাসি এবং এখনও পর্যন্ত এখানে খেলতে পারছি এটার জন্য নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি। আট বছর আগে যখন শরীর সঙ্গ দিচ্ছিল না, তখনও পর্যন্ত ভাবা সম্ভব ছিল না যে কেরিয়ারের এই পর্যায়ে এসে যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে খেলতে পারব।’

তিনবারের ইউএস ওপেন জয়ী নাদালের ম্যাচ দেখতে এদিন আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে হাজির ছিলেন কিংবদন্তি গল্ফ তারকা টাইগার উডস। ম্যাচের শেষে উডসকে নিজের অন্যতম আদর্শ বলে বর্ণনা করেন রাফা এবং ধন্যবাদ জানান তাঁকে উৎসাহিত করতে গল্ফ সম্রাটের গ্যালারিতে হাজির থাকার জন্য। নাদাল বলেন, ‘এত দর্শকের সামনে খেলতে পারাটা অত্যন্ত সম্মানের বিষয়। তার উপর টাইগার উডসের সামনে ম্যাচ খেলার অনুভূতি স্পেশাল সন্দেহ নেই। আমি সব সময় বলে এসেছি আমার বড় কোনও আদর্শ নেই। তবে টাইগার উডস আমার অন্যতম আইডল। ওকে সব সময় অনুসরণ করার চেষ্টা করেছি।’

কোয়ার্টার ফাইনালে নাদাল মুখোমুখি হবেন আর্জেন্তিনার দিয়েগো সোয়ার্ৎজম্যানের। ২০তম বাছাই দিয়েগো প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে ৩-৬, ৬-২, ৬-৪, ৬-৩ সেটে হারিয়ে দেন জার্মানির আলেকজান্ডার জেরেভকে।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব