মালদহ : ফের পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু। এবার পশ্চিমবঙ্গে। ২৬ বছর বয়েসী এক মহিলা পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হল শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে। রাজ্যের মালদহের সামসির ঘটনা। সূত্রের খবর ওই মহিলা মিজোরামের বাসিন্দা। মুম্বই থেকে নিজের বাড়ি ফিরছিলেন। মুম্বই-নাগাল্যান্ড ওই স্পেশাল ট্রেনে উঠেছিলেন ভানলাল মাঙ্ঘাই জুয়ালি। তিনি দরজার কাছে দাঁড়িয়েছিলেন বলে খবর। আচমকাই ঘুমের মধ্যে ট্রেন থেকে পড়ে যান তিনি।

মালদহ টাউনের জিআরপির ইন্সপেক্টর ইনচার্জ ভাস্কর প্রধান জানান, রাত একটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে, ভাগলপুর রেল গেট ও শ্রীপুর রেল গেটের মাঝে। জুয়ালি পড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ট্রেনের চেন টানেন সহযাত্রীরা। ট্রেন থেমে য়ায়। আরপিএফ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। জুয়ালির দেহ উদ্ধার করেন আধিকারিকরা। তাঁর শরীরে গভীর ক্ষতের চিহ্ন ছিল। সামসি রেলওয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে জুয়ালির দেহ নিয়ে যাওয়া হয় মালদা মেডিক্যাল কলেজে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

রেল সূত্রে খবর, জুয়ালি পুনে থেকে ট্রেনে উঠেছিলেন। সেকানেই একটি বেসরকারি কোম্পানিতে কাজ করতেন তিনি। সামসির স্টেশন ম্যানেজার বিমলেন্দু রায় জানান, প্রায় দু মাস ধরে পুনেতে আটকে থাকার পর, বাড়ি ফিরছিলেন জুয়ালি। তাঁর পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে।

অপর একটি ঘটনায় কলকাতা থেকে নিউ জলপাইগুড়ি যাওয়ার পথে পদাতিক এক্সপ্রেসেই মৃত্যু হয় ৬২ বছরের বৃদ্ধার। মালদা টাউন স্টেশন ছাড়ার পরেই রীতা শেরপা নামের ওই মহিলার মৃত্যু হয়। তিনি সোনাদার বাসিন্দা। তাঁর মধুমেহ ছিল বলে জানা গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত তাঁর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়নি।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প