স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: মাধ্যমিকে রাজ্যে দ্বিতীয়৷ এবার উচ্চ মাধ্যমিকেও রাজ্যে পঞ্চম স্থান অধিকার করল বীরভূমের দুবরাজপুরের রমিক দত্ত। আইআইটি থেকে পড়ে ইঞ্জিনিয়র হতে চায় উচ্চ মাধ্যমিকে রমিক।

৪৮৬ নম্বর পাওয়া এই ছাত্রটি বীরভূমের দুবরাজপুর শ্রী শ্রী সারদা বিদ্যাপীঠের ছাত্র৷ পড়াশোনা ছাড়াও গল্পের বই পড়া, ক্রিকেট খেলতে ভালবাসে রমিক।

আরও পড়ুন: ভুল ইনজেকশনে শিশুমৃত্যুর অভিযোগ হাসপাতালের বিরুদ্ধে

২০১৬ সালে মাধ্যমিকে সে ৬৮২ পেয়ে রাজ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছিল। এবার উচ্চ মাধ্যমিকে রাজ্যে পঞ্চম স্থান এবং বাকি জেলার তিনজনকে পিছনে ফেলে এবারও বীরভূমে প্রথম রমিক।

তার বাবা মলয়রঞ্জন দত্ত জীবন বিমার কর্মী। তাই অনেক প্রতিকূলতাকে জয় করে আজ রাজ্যের দশ জনের একজন হয়েছে সে। রমিক জানিয়েছে, গৃহ শিক্ষকের পাশাপাশি স্কুলের শিক্ষিকের সাহায্য ছাড়া এই সাফল্য অর্জন তার পক্ষে সম্ভব ছিল না৷ পাশাপাশি তার বক্তব্য, ‘‘বাবা মা যে ভাবে আমাকে উৎসাহ জুগিয়েছে তাতে আমি অভিভূত। আমি সকালের কাছে কৃতজ্ঞ।’’

আরও পড়ুন: উর্দু মাধ্যমে রাজ্যে প্রথম হাওড়ার নিশাত

রমিকের মা রিঙ্কু দত্ত বলেন, ‘‘ছেলে মাধ্যমিকে রাজ্যে দ্বিতীয় হয়েছিল৷ তাই আমরা ভেবেছিলাম এক থেকে পাঁচের মধ্যে ও থাকবে। ওর মধ্যে একটা জেদ ছিল ভালো ফল করার। পড়া নিয়ে আমরা কোনও দিন ওকে চাপ দিতাম না।’’

শ্রী শ্রী সারদা বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক শুভাশিস চট্টরাজ বলেন, ‘‘রমিকের সাফল্য আমাদের স্কুলের ছেলে-মেয়েদের অনুপ্রাণিত করেছে। আমাদের পরিশ্রম সার্থক হয়েছে।’’

আরও পড়ুন: ব্যস্ততাকে দূরে সরিয়ে রেখে অসমে ছুটি কাটাতে ব্যস্ত এই টলি অভিনেত্রী