সচিনের বিদায়ী টেস্ট সিরিজ শুরু হওয়ার আগে একটা প্রশ্ন সকলের মাথাতেই ঘুরপাক খাচ্ছিল৷ মাস্টার ব্লাস্টারের অবসরের পর চার নম্বরে এবার কে? অটোমেটিক চয়েস হিসেবে বিরাট এবং সদ্য অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের শেষ ওয়ান ডে-তে ডাবল সেঞ্চুরি করা রোহিতের নামই ছিল সেই তালিকায়৷ রবিবার ইডেন টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ভারতের ব্যাটিং দেখার পর খুব তাড়াতাড়ি হলেও, একটা বিষয়ে সকলেই একমত, মুম্বই-এর সচিনের বিকল্প হিসেবে জায়গা করে নেওয়ার ব্যাপারে এখন এগিয়ে আরেক মুম্বইকরই৷ অভিষেক টেস্টে শতরান করে দলকে খাদের কিনারা থেকে সুবিধাজনক অবস্থায় পৌঁছে দিলেন রোহিত শর্মা৷

বৃহস্পতিবার ইডেনে দ্বিতীয় দিনের খেলার শেষে রোহিত শর্মা৷
বৃহস্পতিবার ইডেনে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে রোহিত শর্মা৷

বৃহস্পতিবার ইডেনে সচিনের ব্যাটিং দেখতে বুধবারের তুলনায় যে অনেক বেশি লোক হবে, এবিষয়ে আগের থেকে অনুমান করাটা কোনও কঠিন কাজ ছিল না৷কিন্তু সচিনসহ লাঞ্চের আগেই ভারতের পাঁচ ব্যাটসম্যান যে প্যাভিলিয়ানে ফিরে যাবেন, সে বিষয়টাও আগের থেকে অনুমান করা হয়তো সম্ভব ছিল না কারোর কাছেই৷ কিন্তু অখ্যাত শ্যেন শিলিংফোর্ডের দুরন্ত স্পিন এবং টিনো বেস্ট ও কটরেলের নিখুঁত লাইন-লেংথের কাছে একে একে পরাস্ত হতে থাকেন বিজয়, পূজারা, বিরাটরা৷ এক সময়ে ৮৭ রানেই ৫ উইকেট পড়ে গিয়েছিল ভারতের৷ তখন ক্রিজে নামেন, রোহিত৷ সঙ্গে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি৷ ষষ্ঠ উইকেটে দু’জনে মিলে ৭৩ রান যোগ করেন৷ কিন্তু ৪২ রান করে বেস্টের বলে কট বিহাইন্ড হন ধোনি৷ প্রথম ইনিংসে যখন লিড নেওয়ার কথা ভাবছেন স্যামিরা, তখন রবীচন্দ্রন অশ্বিনের মতো একজন টেল এন্ডার যে তাঁর রাতের ঘুম কেড়ে নেবে, তা হয়তো আন্দাজ করতে পারেননি ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক স্যামিও৷ ১৪৮ বলে ১০টি চারের সহযোগে এখন ক্রিজে রোহিতের সঙ্গে ৯২ রানে অপরাজিত অশ্বিন৷ সঙ্গে জীবনের প্রথম টেস্টেই ১২৭ রানে নট আউট রোহিত শর্মা৷ ভারত এগিয়ে ১২০ রানে৷ শুক্রবার তৃতীয় দিনে আরও অন্তত ১০০ রান যোগ করতে পারলেই, এই ম্যাচ হাতের বাইরে চলে যাবে ক্যারিবিয়ানদের৷ শুক্রবার তাই ইডেনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তিনটি সেশনই হতে চলেছে দু’দলের কাছে৷