প্রতীকি ছবি

মালদহঃ  প্রতিবেশীর বাড়ি দখলের চেষ্টার অভিযোগ তৃণমূল নেতা তথা ইংরেজবাজার পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যের বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের ইংরেজবাজার থানার লক্ষ্মীপুর কলোনিতে। এই ঘটনার প্রতিবাদ করায় বাড়ি ভাঙচুরের মতো মারাত্মক ঘটনাও ঘটেছে। শুধু তাই নয়, অভিযুক্ত ওই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে এক মহিলাসহ চারজনকে মারধরেরও অভিযোগ। ঘটনায় গুরুতর আহতরা মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ইতিমধ্যে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা মাইনুল শেখের বিরুদ্ধে ইংলিশ বাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, আহতরা হল আকবর আলি আফজাল আলী সাবনাম খাতুন। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, আকবর আলীদের কয়েক বিঘা জমির উপর একটি বাড়ি রয়েছে। সেই বাড়িটি দীর্ঘদিন ধরে দখলের চেষ্টা করছে তৃণমূল নেতা তথা জমি মাফিয়া মাইনুল শেখ ও তার দলবল। এদিন রাতের অন্ধকারে মাইনুল সেখ ও তার দলবল আকবর আলী দের বাড়ি দখল করার চেষ্টা করলে বাধা দেয় তার পরিবারের সদস্যরা। অভিযোগ, সেই সময় তাদের ওপর চড়াও হয় তাদেরকে বেধড়ক মারধর শুরু করে বলে অভিযোগ। ঘটনায় পরিবারের ৩ সদস্য আহত হন। তাদের চিৎকার-চেঁচামেচিতে গ্রামবাসীরা ছুটে আসতে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।

ইতিমধ্যে গোটা ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ইংরেজবাজার থানা। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পলাতক। তৃণমূলের মালদা জেলা কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার বলেন, এ ধরনের একটি ঘটনা ঘটেছে। দল বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে। পাল্টা বিজেপি মানবেন্দ্র চক্রবর্তী বলেন, দখল করার প্রবণতা তৃণমূলের মজ্জাগত হয়ে গিয়েছে। এটাই ওদের কালচারে দাঁড়িয়ে গিয়েছে বলেও তোপ বিজেপি নেতার। তবে তৃণমূল নেতৃত্বের তাদের এই ধরনের নেতার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলে মনে করেন মানবেন্দ্র চক্রবর্তী।