স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দলের বিধায়কদের সঙ্গে ফের ভিডিও-বৈঠক করতে চলেছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার, ৫ জুন বিকেল পাঁচটায় এই ভিডিও কনফারেন্স হবে। করোনা ও আমফান এই দুই দুর্যোগ নিয়ে রাজ্যের শাসকদলের নানান ব্যর্থতাকে চিহ্নিত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করছে বিজেপি। এই প্রচারকে কিভাবে কাউন্টার করা যায় তা ঠিক করতে আরও একবার আলোচনায় বসছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

শুক্রবারের বৈঠকে করোনা এবং আমফান, মূলত এই বিষয় নিয়েই আলোচনা হবে বলে দলীয় সূত্রে খবর। আমফান পরবর্তী পরিস্থিতিতে দলের বিধায়করা কী ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, এদিন দলনেত্রী তা জানতে চাইতে পারেন। এছাড়াও, ভিন রাজ্য থেকে বহু শ্রমিক গত কয়েকদিনে রাজ্যে ফিরেছেন, এর ফলে জেলাগুলিতে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে।

তৃণমূলের অনেকেই মনে করছেন এই পরিস্থিতিতে দলের নেতাদের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দিতে পারেন নেত্রী। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যে কোনও মিটিং মিছিল করা সম্ভব না। তাই মিটিং কিংবা মিছিলের পরিবর্তে কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে মানুষের কাছে পৌঁছানো যায় সেই বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হতে পারে শুক্রবার।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, বিজেপি যেভাবে সংগঠনকে ঢেলে সাজাচ্ছে, তৃণমূলও চাইছে নিজেদের সাংগঠনিক ভিতকে আরও বেশি করে মজবুত করতে। নির্বাচনের আগে এই বৈঠককে আগামী দিনের প্রস্তুতি হিসাবেই মনে করছেন তাঁরা। উল্লেখ্য, গত ১০ মে দলীয় বিধায়কদের সঙ্গে ভিডিও বৈঠক করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই বৈঠকেও করোনা ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছিল।

এছাড়াও, রেশন নিয়ে কারও যাতে অসুবিধা না হয়, সেদিকে জনপ্রতিনিধিদের নজর রাখার নির্দেশ দেন। মানুষের সঙ্গে ভাল ব্যবহারের নির্দেশ দেন দলনেত্রী।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।