তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া : প্রাক্ পুজো মরশুমেও হাতির আক্রমণ অব্যাহত বাঁকুড়ায়। গত কয়েক দিন ধরে জেলার উত্তর বনাঞ্চলে প্রায় চল্লিশ সদস্যের একটি হাতির দল দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ফলে ঘুম ছুটেছে এলাকাবাসীর। বৃহস্পতিবার রাতে ‘দলছুট’ একটি হাতি ব্যাপক তাণ্ডব চালালো পাত্রসায়রের বীরসিংহ এলাকায়।

ঐ দাঁতালের আক্রমণে তাঁত কারখানা, মোবাইল, কাপড়, মুদিখানা, আলুর আড়ৎ সহ আটটি দোকানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পূজোর মুখে ঐ ক্ষতি কিভাবে সামাল দেবেন ভেবে পাচ্ছেন না ক্ষতিগ্রস্তরা।

স্থানীয় বাসিন্দা ও বনদপ্তর সূত্রে খবর, ঐ দিন রাতে ৪০ টি হাতির ঐ দলটিকে বনদপ্তরের প্রশিক্ষিত হুলা পার্টির সদস্যরা পাত্রসায়র থেকে জয়পুরের দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন। সেই সময় একটি হাতি বীরসিংহ গ্রামে ঢুকে পড়ে এবং রাতের অন্ধকারে অবাধে একের পর এক দোকান ভেঙ্গে ফেলে।

ক্ষতিগ্রস্ত আলু ব্যবসায়ী স্বরুপ দত্ত, তাঁত শিল্পী সোমনাথ দাস প্রত্যেকেই এই ঘটনায় যথেষ্ট আতঙ্কিত। পুজোর মুখে এই বিপুল পরিমান ক্ষতি কিভাবে তারা সামাল দেবেন ভেবে পাচ্ছেননা বলে এদিন তারা জানান।

স্থানীয় বিট অফিসার উত্তম মাহাতো এবিষয়ে বলেন, হাতি তাড়াতে গিয়ে একটি দলছুট হাতি গ্রামে ঢুকে পড়ে। ক্ষতির পরিমান খুব বেশী নয় দাবি করে তিনি বলেন, ক্ষোভ বিক্ষোভ থাকবেই। ক্ষতিগ্রস্তরা যাতে সরকারী নিয়মানুযায়ী ক্ষতিপূরণ পান তা নিশ্চিত করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।