স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি হয়েও ভালো বৃষ্টি মিলছে না। আবারও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিই হবে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। কিন্তু কেমন এমন পরিস্থিতি? উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে যে নিম্নচাপটি তৈরি হয়েছে, তার অবস্থান অন্ধ্রপ্রদেশ এবং ওডিশা উপকূল ঘেঁষে রয়েছে। ওই নিম্নচাপের প্রভাব থাকবে এই রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলিতে। সেখানে কয়েকটি জায়গায় ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বাকি জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

আজ সকাল পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টির পরিমান দেখলেই তা স্পষ্ট হয়ে যাবে। আজ মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বাঁকুড়ায় ০.৭ মিলিমিটার, ব্যরাকপুরে ৫.০ মিলিমিটার, বর্ধমানে ১.৪ মিলিমিটার, ক্যানিংয়ে ১ মিলিমিটার, ডায়মন্ড হারবারে ১.৯ মিলিমিটার, হলদিয়ায় ০.২ মিলিমিটার, পানাগড়ে ৩.৪ মিলিমিটার, শ্রীনিকেতনে ১১.৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে এই নিম্নচাপটি ওডিশা ও পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে আগামী কয়েকদিন ভালো বৃষ্টি দিতে পারে। আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন, এদিকে, ওই নিম্নচাপ অঞ্চল লাগোয়া একটি ঘূর্ণাবর্তও তৈরি হয়েছে। পাশাপাশি মৌসুমি অক্ষরেখাটি ফিরোজপুর, দিল্লি হয়ে ওই নিম্নচাপ এলাকা হয়ে বঙ্গোপসাগরে মিশেছে। উত্তরবঙ্গের দুই দিনাজপুর ও মালদহ বাদে উত্তরবঙ্গের বাকি পাঁচটি জেলায় কোথাও কোথাও আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়িতে ২৩.৪ মিলিমিটার, জলপাইগুড়িতে ৮৫.৬ মিলিমিটার, কোচবিহারে ৩৫.৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। অর্থাৎ এটা দক্ষিনের থেকে ইতিমধ্যেই উত্তরে বেশি বৃষ্টি হয়ে তা স্পষ্ট।

এর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় হাওয়া অফিস সূত্রে জানা যাচ্ছে, আগামী কয়েকদিন কর্নাটক, কেরালা, মহারাষ্ট্র, তামিলনাডু এলাকায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলির ভারী বৃষ্টির সর্তকতা দিয়েছে মৌসন ভবন। উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ ছত্রিসগড়ে আগামী দিন দুয়েক ভারী বৃষ্টির হতে পারে। মৌসুমী অক্ষরেখার পশ্চিমাংশ হিমালয় পাদদেশ সংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে এর ফলে বৃষ্টি বাড়বে উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে। মঙ্গলবার থেকে দিল্লি, পঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, উত্তরাখণ্ড, হিমাচলপ্রদেশ সহ উত্তরপ্রদেশের একাংশে ১২ আগস্ট পর্যন্ত বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। রাজস্থানে আগামী ধূলোঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা