তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়াঃ গ্রামবাসীদের বাধায় বন্ধ হল ঢালাই রাস্তা তৈরীর কাজ। বৃহস্পতিবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র পঞ্চায়েতে ক্ষমতাসীন বিজেপি ও বিরোধী তৃণমূল দুই দলের তীব্র রাজনৈতিক চাপানতোর শুরু হল।

বাঁকুড়া-২ ব্লকের মানকানালী গ্রাম পঞ্চায়েতটি বর্তমানে বিজেপির দখলে। স্থানীয় ক্ষীরকানালী গ্রামে প্রায় ৬০০ মিটার একটি রাস্তা ঢালাইয়ের সিদ্ধান্ত নেয় পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষ। আর এই কাজে বাধা দেন গ্রামবাসীদের একাংশ। তাদের দাবী, প্রায় তিরিশ বছরের পুরাণো নলকুপের জল গত এক বছর ধরে রাস্তার উপর জমা হওয়ায় মানুষ চরম সমস্যায় পড়ছেন।

এমনকি জমা জলে মশা মাছির উপদ্রব বাড়ছে। বিষয়টি স্থানীয় পঞ্চায়েতে জানালেও কোন কাজ হয়নি। গ্রামবাসী নিতাই দে, জ্যোৎস্না দে’রা বলেন, নলকূপটি বহু পুরাণো। আগে জলনিকাশী ব্যবস্থা থাকলেও বর্তমানে তা নেই। ফলে ওই নলকূপের জল রাস্তার উপর জমা হয়ে এলাকার পরিবেশ অস্বাস্থ্যকর হয়ে উঠছে। আগে পঞ্চায়েত নিকাশী নালার ব্যবস্থা করুক, পরে রাস্তা ঢালাই হবে বলে তাদের দাবী।

এবিষয়ে গ্রামবাসীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্বেও। দলের বাঁকুড়া-২ ব্লক সভাপতি কাশী বিদ্ বলেন, পঞ্চায়েতে ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতৃত্ব কাটমানি খেতে ঢালাইয়ের কাজ শুরু করছিলেন। কিন্তু মূল সমস্যা বিষয়ে তারা দৃষ্টি দেননি। গ্রামবাসীরা বাধা দিয়েছেন। এর পিছনে কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই বলে তার দাবী। বিজেপি প্রধান ত্রাবেণী বাউরী বলেন, ঐ জায়গায় ড্রেনের কাজ শুরু হবে। তার আগে ঐ রাস্তা তৈরী হচ্ছিল। এর পিছনে বিজেপি পরিচালিত পঞ্চায়েতকে তৃণমূল কাজ করতে বাধা দিচ্ছে বলে তার অভিযোগ।