স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়ের ১৫৭ তম জন্মদিবস উপলক্ষে দু’দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক রসায়নবিদদের একটি সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল৷ সম্প্রতি ইন্ডিয়ান কেমিক্যাল সোসাইটি ও হলদিয়া ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজির যৌথ উদ্যোগে চলতি মাসের ২ ও ৩ তারিখ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়৷ অনুষ্ঠানটি হলদিয়া ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজিতেই হয়েছিল।

সেই সমাবেশে অজৈব রসায়ন বিভাগের গবেষক হিসেবে জলপাইগুড়ির ছেলে দীপু কুমার মিশ্র উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে অংশ গ্রহণ করেন। জলপাইগুড়ি উত্তর রায়কত পাড়ার বাসিন্দা দীপু কুমার মিশ্র। সমাবেশে তিনি তাঁর একটি গবেষণা পত্র উপস্থাপন করেছিলেন৷ আর সেই অভিনব গবেষণা পত্রের কারণে সভায় উপস্থিত বিশিষ্ট দেশ-বিদেশের বৈজ্ঞানিক দ্বারা তিনি প্রশংসিত হন। শুধু তাই নয়, তাঁকে ‘আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায় মেমোরিয়াল ইয়ং সায়েন্টিস্ট অ্যাওয়ার্ড’-য়ে পুরস্কৃত করা হয়। তাঁর গবেষণা পত্রটির মূল বিষয়বস্তু ছিল জিঙ্কের একটি নতুন জটিল যৌগের সংশ্লেষণ এবং ডিএনএ-র সঙ্গে তার মিথষ্ক্রিয়া।

তাঁর এই গবেষণা ক্যান্সার চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত। দেশের বিভিন্ন রাজ্য থেকে মোট ২০ জন এই সমাবেশে সুযোগ পান তাঁদের নিজেদের প্রতিভাকে তুলে ধরার জন্য। এদের মধ্যে প্রথম তিনজনকে বেস্ট অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়ে থাকে। তাদের মধ্যে একজন হলেন দীপু। তার হাতে সার্টিফিকেট ও ট্রফি তুলে দেওয়া হয়। দীপু মিশ্র বর্তমানে উত্তরবঙ্গ বিশ্ব বিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. বিশ্বজিৎ সিনহার তত্ত্বাবধানে গবেষণারত। জানা গিয়েছে, ছোটবেলা থেকে দীপু মেধাবী ছাত্র হিসেবেই পরিচিত। এই প্রসঙ্গে দীপুর বাবা সুরেন্দ্র মিশ্রকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘আমি স্থানীয় সোনাউল্লা হাই স্কুলের একজন কর্মী। আমার ছেলের এই সাফল্যে পরিবারের সকলেই বেশ খুশি। আগামী দিনে যাতে আরও ভাল ফল করে দীপু সেই কামনাই করি৷’’